২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সপ্তাহান্তে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের সম্ভাবনা, পুজোর মুখে রাজ্যে ফের দুর্যোগের আশঙ্কা

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 1, 2020 1:43 pm|    Updated: October 1, 2020 1:44 pm

An Images

নব্যেন্দু হাজরা: আপাতত ঝলমলে রোদ। আবার কোথাও মেঘবৃষ্টির লুকোচুরি দেখা যাচ্ছে ঠিকই। তবে পুজোর (Durga Puja) আগে দক্ষিণবঙ্গের আকাশে ফের দুর্যোগের ঘনঘটা। কারণ, সপ্তাহান্তে নিম্নচাপের সম্ভাবনা রয়েছে বলেই আশঙ্কা আবহাওয়াবিদদের। তার ফলে শনি এবং রবিবার ভারী বৃষ্টিতে ভিজতে পারে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলি।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, সপ্তাহান্তে নিম্নচাপের সম্ভাবনা। পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে রয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত। ঘূর্ণাবর্ত সরে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও ওড়িশা উপকূলে আসবে। এবং আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তা নিম্নচাপে পরিণত হবে। তার প্রভাবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে। তবে উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি (Rain) হতে পারে। ওড়িশাতেও ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা। ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে উত্তরবঙ্গ-অসমের উপরেও। তার প্রভাবে অরুণাচল, অসম, মেঘালয়, মণিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরা-সহ উত্তর পূর্ব ভারতের সব রাজ্যে আগামী চার-পাঁচদিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস।

[আরও পড়ুন: ‘ন্যক্কারজনক’, হাথরাসে ধর্ষণ নিয়ে সরব মমতা, নাম না করে বিজেপিকে বিঁধলেন তৃণমূল নেত্রী]

কলকাতায় বৃহস্পতিবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ ডিগ্রি। বাতাসে জলীয় বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯৬ শতাংশ। জলীয় বাষ্প থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি চরমে উঠবে। কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ। কয়েক দফায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। এদিকে, দেশে বর্ষা বিদায় শুরু হয়েছে। রাজস্থান ও পাঞ্জাবের বেশিরভাগ অংশ থেকেই বর্ষা বিদায় নিয়েছে। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী ৪-৫ দিনের মধ্যে উত্তর-পশ্চিম ভারতের বেশিরভাগ রাজ্য থেকেও বর্ষা (Monsoon) বিদায় নেবে।

[আরও পড়ুন: আয়ব্যয়ের হিসাব দেখে রাজ্যের প্রশংসায় CAG, ‘মিতব্যয়ী’ বাংলাকে মডেল করার পরামর্শ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement