BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

প্রচারে মিমির হাতে লাগল চোট, মালিশে সারালেন অরূপ

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 16, 2019 5:58 pm|    Updated: April 22, 2019 4:10 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: ভোটপ্রচারে বেরিয়ে হাতে চোট পেলেন টলি অভিনেত্রী তথা যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী৷ মঙ্গলবার দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অমর সিং রাইয়ের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে, অনুরাগীদের সঙ্গে করমর্দন করার সময় বাঁ হাতে চোট পেলেন তিনি৷ তড়িঘড়ি জল দিয়ে অভিনেত্রীর হাত মালিশ করতে দেখা গেল রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে৷

[ আরও পড়ুন:   তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যের স্বামীকে মার, গ্রেপ্তার বিজেপি নেতা-সহ তিন  ]

এদিন সকালে দার্জিলিং লোকসভার অন্তর্গত শিলিগুড়ি কর্পোরেশনের একাধিক ওয়ার্ডে প্রচার করেন মিমি চক্রবর্তী৷ তাঁকে দেখতে রাস্তায় ভিড় জমান প্রচুর সংখ্যক সাধারণ মানুষ৷ নায়িকার সঙ্গে ছবি তোলার হিড়িক পড়ে যায় তাঁদের মধ্যে৷ হুডখোলা গাড়ি থেকে অনুরাগীর সঙ্গে হাত মেলান তিনি৷ জানা গিয়েছে, তখনই যাদবপুরের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীর বাঁ হাতে হ্যাঁচকা টান লাগে৷ যন্ত্রনায় কাতরাতে থাকেন তিনি৷ কিছু সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে যায় তৃণমূলের প্রচার৷ অভিনেত্রীর হাতে জল দিয়ে মালিশ করে দেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস৷ এবং এরপর কিছুটা স্বস্তিবোধ করেন তৃণমূল প্রার্থী৷

[ আরও পড়ুন: নির্বাচনী এজেন্ট বাছাই নিয়ে দলীয় কোন্দল, বর্ধমান-দুর্গাপুরে ক্ষোভের মুখে কংগ্রেস প্রার্থী ]

জানা গিয়েছে, এদিন বেছে বেছে বাম-কংগ্রেসের অধীনে থাকা ওয়ার্ডগুলিতে প্রচার করে তৃণমূল৷ কংগ্রেসের অধীনে থাকা ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের চিলড্রেন পার্ক থেকে শুরু হয় শাসকদলের প্রচারপর্ব৷ এরপর ২৪, ২৩, ২২ নম্বর ওয়ার্ড ঘুরে ২১ নম্বর ওয়ার্ডে রবীন্দ্রনগর গার্লস হাই স্কুলে শেষ হয় শাসকদলের প্রচার৷ মিছিল শুরুর সময় তেমন লোক না থাকলেও ধীরে ধীরে বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে লোক জড়ো হতে থাকে তৃণমূলের ভোটপ্রচারে৷ ফলে একসময় মিছিলে এত মানুষের জমায়েত হয় যে, রাস্তায় ব্যাপক যানজট তৈরি হয়৷ তাঁর জয়ের পাশাপাশি দার্জিলিংয়ের তৃণমূল প্রার্থীর জয়ের বিষয়েও নিশ্চিত বলে জানান মিমি৷ তিনি বলেন, ‘‘আমার কেন্দ্রে তো আমি জিতবই৷ আমার আশা, এখানকার তৃণমূল প্রার্থীও জিতবে৷ অরূপদা দীর্ঘদিন ধরে এখানে রয়েছে৷ আমি আশা করি এখানকার মানুষ তৃণমূলকেই ভোট দেবে৷ আমিও সাধারণ মানুষের কাছে সেই আবেদনই করব৷” এদিনের রোড শোয়ে মিমির সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের দুই হেভিওয়েট মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও গৌতম দেব৷

অলংকরণ: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement