BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চার জেলায় মোদির সভা, সম্ভাব্য তালিকা প্রকাশ বঙ্গ বিজেপির

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 30, 2018 12:19 pm|    Updated: November 30, 2018 12:19 pm

Modi Bengal tour schedule revealed

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বিজেপির পাখির চোখ বাংলা৷ লোকসভা নির্বাচনে অন্তত ২২টি আসন দখল নেওয়ার মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে গেরুয়া শিবির৷ আর সেই লক্ষ্য পূরণে রাজ্যজুড়ে রথযাত্রার প্রস্তুতি এখন তুঙ্গে৷ রথযাত্রা উপলক্ষে দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে একগুচ্ছে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন বঙ্গে বিজেপির নেতারা৷ এবার বাংলায় তৃণমূলের শক্ত মাটিতে পদ্ম ফোটাতে খোদ প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে চারটি সভার প্রস্তুতি শুরু করলেন ৬, মুরলিধর সেন স্ট্রিটের রাজ্য নেতারা৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সম্ভাব্য জনসভার তালিকা প্রকাশ করে মাঠে নামতে চলেছে বিজেপি৷ জানা গিয়েছে, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৪ ডিসেম্বর দুর্গাপুর ও ২৮ ডিসেম্বর মালদহে সভা করতে পারেন মোদি৷ নতুন বছরের শুরুতে দ্বিতীয় দফায় ৫ জানুয়ারি শ্রীরামপুর ও ১১ জানুয়ারি কৃষ্ণনগরে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী৷ তবে, প্রস্তুতি শুরু হলেও সম্ভাব্য তালিকার অনুমোদন এখন দেয়নি পিএমও৷

[জেলে সরবরাহ হচ্ছে ভেজাল তেল, ঠিকাদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ কারা দপ্তরের]

বিজেপি সূত্রে খবর, পার্টির তরফে মোদির সভা করার জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আগামী শুক্রবার কোচবিহার থেকে  রথযাত্রা শুরু হচ্ছে ৷ সেখানে সূচনা করবেন অমিত শাহ। ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে মোদির সভাগুলি হবে বলে প্রাথমিক ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ টানা একমাস রথযাত্রা চলবে। ওই কর্মসূচিতে চার জেলায় গিয়ে লোকসভার প্রচার শুরু করবেন মোদি৷

বঙ্গ বিজেপির আশা, রথযাত্রা চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী সভা করলে জনসমাগম বাড়বে। সেই সঙ্গে বাড়বে সাংগঠনিক ক্ষমতাও। কিন্তু এসব দাবিকে পাত্তা দিচ্ছে না তৃণমূল শিবির। রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতার হবু মেয়র ফিরহাদ হাকিমের দাবি, মোদির জনসভা বঙ্গে কোনও প্রভাবই ফেলতে পারবে না। তিনি বলেন, “পশ্চিমবঙ্গের মাটি এত শক্ত যে পাঁচটা কেন ৫০০টা সভা করেও নরেন্দ্র মোদি এখানে সুবিধা করতে পারবেন না৷”

[তাপমাত্রা নামলেও এখনই শহরে আসছে না শীত]

এদিকে, রথযাত্রা কর্মসূচি নিয়ে রাজ্য প্রশাসন কোনওরকম সহযোগিতা করছে না বলে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি৷ চিঠি দেওয়া সত্ত্বেও নবান্ন কোনও উত্তর দেয়নি। এই অভিযোগে রাজ্যপালকে নালিশ জানায় বিজেপি নেতৃত্ব। এপ্রসঙ্গে রাহুল সিনহা বলেন, “রাজ্য সরকার চিঠির উত্তর দিক বা না দিক, রথযাত্রা হবে। প্রয়োজনে আমরা আইনের দ্বারস্থ হব। যাত্রা বেরোবে। আরও রক্ত যদি বিজেপি কর্মীদের ঝরে ঝরবে।” রাহুলের দাবি, রাজ্যপাল বলেছেন তিনি এ বিষয়ে প্রশাসনের উপযুক্ত আধিকারিকের সঙ্গে কথা বলবেন। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে