BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মাতৃস্নেহ! গাড়ি চাপা পড়ে মৃত কুকুরছানা, ঘণ্টার পর ঘণ্টা সন্তানের দেহ আগলে শোকার্ত মা

Published by: Suparna Majumder |    Posted: January 20, 2022 1:16 pm|    Updated: January 20, 2022 1:36 pm

Mourning dog mother holds the body of the child for hours | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

ধীমান রায়, কাটোয়া: বাংলায় এবার শীত ভালই পড়েছে। কলকাতার পাশাপাশি জেলাগুলিও ঠান্ডায় কাবু। এই প্রবল শীতের মধ্যেই খোলা আকাশের তলায় ঘন্টার পর ঘন্টা মৃত সন্তানকে আগলে বসে রয়েছে মা। তাকে ভুলিয়ে মৃতদেহটি সরানোর চেষ্টা করেছেন স্থানীয়রা। কিন্তু সন্তানের কাছে কাউকে ঘেঁষতে দিচ্ছে না সারমেয় মা। পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার বাজার সংলগ্ন এলাকায় দেখা গেল এমন দৃশ্য। 

ভাতার বাজারে গান্ধী কালচার ভবনের কাছে বুধবার দুপুর নাগাদ একটি গাড়ি পিষে দেয় একটি কুকুরছানাটিকে। আশপাশেই ছিল তার মা। ছুটে আসে সে। তারপর থেকেই সন্তানের মৃতদেহ আগলে বসে রয়েছে।  সন্তানের মৃতদেহের পাশ থেকে একচুলও কেউ সরানো যায়নি সারমেয় মাকে। কাউকেই হাত দিতে দিচ্ছে না সে।

Dog Mother
ছবি: জয়ন্ত দাস

[আরও পড়ুন: ওষুধের দোকান থেকে এবার আপনিও কিনতে পারবেন করোনার জোড়া ভ্যাকসিন! মিলল প্রাথমিক ছাড়পত্র]

শোকার্ত মায়ের এই স্নেহ দেখে কাতর বর্ধমানবাসী। স্থানীয় বাসিন্দা সোমনাথ মাজির বলেন, ” ওই মা কুকুরটিকে আমরা ভুলু বলে ডাকি। পাড়াতেই থাকে। একটি গাড়ি পিছোতে গিয়ে তার বাচ্চাকে চাপা দেয়। তারপর দেখি সারাটা রাত ঠান্ডার মধ্যেই ভুলু ওর বাচ্চাকে আগলে বসে রয়েছে। শীতে কাঁপছিল। কিন্তু ভুলুকে সরানো যায়নি।”

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেও ওই সারমেয়কে দেখা যায় তার মৃত সন্তানকে আগলে বসেই রয়েছে। মাঝে মধ্যে সাদা রঙের কোনও চারচাকা গাড়ি গেলে চিৎকার করছে। স্থানীয়রা জানান যে গাড়িটি তার সন্তানকে চাপা দিয়েছিল তার রঙ ছিল সাদা। আর ওই গাড়িচালক বাচ্চা কুকুরটি চাপা দিয়েই পালিয়ে যায়। বোধহয় সেই কারণেই সাদা গাড়ি দেখে চিৎকার করে উঠছে ভুলু। স্থানীয় বাসিন্দারা অপেক্ষায় রয়েছেন, যদি কোনওভাবে ভুলুকে তার সন্তানের কাছ থেকে একটু দূরে নেওয়া যায়, তাহলে অন্তত ছোট্ট কুকুরছানাটির সৎকার করা যাবে। কিন্তু ভুলু তার সন্তানকে ছাড়তে নারাজ।  

[আরও পড়ুন: ​জটিল অস্ত্রোপচারে সাফল্য, কোভিড আক্রান্ত মহিলাকে নয়া জীবনদান বর্ধমান মেডিক্যালের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে