১১ আষাঢ়  ১৪২৬  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

১১ আষাঢ়  ১৪২৬  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

বিক্রম রায়, কোচবিহার: কোচবিহারে দলের কর্মীদের চাঙ্গা করতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমল সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। তুফানগঞ্জে তাঁকে কালো পতাকা দেখালেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। উঠল ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনিও। দলের কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে পালটা স্লোগান দিলেন হাওড়ার তৃণমূল সাংসদও। তবে পুলিশি তৎপরতায় দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল বিধায়ককে হুমকি চিঠি, চাঞ্চল্য কোচবিহারের মেখলিগঞ্জে]

এবারের লোকসভা ভোটে কোচবিহার আসনটি হাতছাড়া হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের। ফলপ্রকাশের পর থেকে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে দলের কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন বলে অভিযোগ। এমনকী, বেশ কয়েকটি পার্টি অফিস দখল হয়ে গিয়েছে। দলের কর্মীদের চাঙ্গা করতে কোচবিহারে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধিদল। প্রতিনিধি দলে রয়েছেন সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, মালা রায় ও প্রতিমা মণ্ডল।

বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সভাপতি বিনয়কৃষ্ণ বর্মন, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে সঙ্গে তুফানগঞ্জে একটি বন্ধ পার্টি অফিস খোলেন সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। কার্যালয়ে তৃণমূলের পতাকা তোলা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, পার্টি অফিসে যখন দলের স্থানীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করছিলেন সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, তখন কাছেই বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে জমায়েত করেন গেরুয়া শিবিরের কর্মী-সমর্থকরা। প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ শাসকদলের প্রতিনিধিদের কালো পতাকা দেখান তাঁরা। উঠে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি। এদিকে বিজেপির কর্মীদের দেখামাত্রই সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পালটা স্লোগান দিতে শুরু করেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরাও। স্লোগান-পালটা স্লোগানে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে তুফানগঞ্জে। তবে পুলিশের তৎপরতায় বড় কোনও অশান্তি হয়নি। এদিন বক্সিরহাটেও বিজেপির বিক্ষোভের মুখে পড়েন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা।

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং