২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত ভোটে অনেক পুরসভাই আসবে বিজেপির দখলে’, আত্মবিশ্বাসী মুকুল রায়

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 25, 2020 9:03 pm|    Updated: January 25, 2020 9:03 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: আসন্ন পুরভোটে দলের ভাল ফলাফল নিয়ে বেশ আশাবাদী বিজেপি নেতা মুকুল রায়। সাধারণ মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে আগামী পুরভোটের অধিকাংশ পুরসভা ও কর্পোরেশনে বিজেপির পতাকা উড়বে, পুরুলিয়ার মিছিল থেকে আত্মবিশ্বাসী মন্তব্য করলেন তিনি। শনিবার পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে বিজেপির মহামিছিল ও পথসভা কর্মসূচি ছিল। সেখান থেকেই এই মন্তব্য বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মুকুল রায়ের।

prl-mukul1

গত লোকসভা ভোটে জঙ্গলমহলের এই জেলায় গেরুয়া শিবিরের বাড়বাড়ন্ত নজরকাড়া। তৃণমূলের তৈরি করা জমিতে দাঁত বসিয়ে আসনটি দখল করেছে বিজেপি। সাংসদ হয়েছেন জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো। যদিও রঘুনাথপুর এলাকা বরাবর বিজেপির শক্ত ঘাঁটি। তা সত্ত্বেও CAA’র সমর্থনে মিছিলকে সামনে রেখে পুরভোটের আগে দলের সাংগঠনিক অবস্থা বুঝে নেওয়া লক্ষ্য ছিল গেরুয়া শিবিরের। এদিন রঘুনাথপুরের মহামিছিলে ভিড় দেখে মুকুল রায় বলেন, “CAA নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে তৃণমূল। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এ কোথাও নাগরিকত্ব হরণ করা হবে না। যাঁরা পড়শি দেশগুলি থেকে ধর্মীয়ভাবে, সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে অত্যাচারের শিকার হয়েছেন সেই বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তানে বসবাস করা মানুষজনকে আমরা নাগরিকত্ব দেব। তবে রাজ্যে যে আইন বা প্রস্তাব পাশ হোক না কেন, CAA হবেইl এটা একটা আইন। কেউ বাধা দিতে পারবে না।”

[আরও পড়ুন: রাতারাতি পদ্ম হল ঘাসফুল! বাবুলের উদ্বোধন করা কার্যালয়ে নতুন করে ফিতে কাটলেন জিতেন্দ্র]

শনিবার বিজেপির এই কর্মসূচিতে ভিড় উপচে পড়েছিলl যে দিকে চোখ জয় শুধু কালো মাথার ভিড়l নতুন বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হওয়া মিছিল ব্লকডাঙায় শেষ হয়। প্রায় দু’কিলোমিটার এই পদযাত্রায় হেঁটেছেন পুরুলিয়া ও বাঁকুড়ার দুই সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো ও সুভাষ সরকার, বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী। মিছিল শেষে সভা থেকে মুকুল রায় আত্মবিশ্বাসের সুরে বলেন, “আগামী পুরভোটে সাধারণ মানুষ যদি তাঁর নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, তাহলে রাজ্যের অধিকাংশ পুরসভা ও কর্পোরেশন দখল করবে বিজেপি।”

[আরও পড়ুন: ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উপলক্ষে বর্ধমানে হাজির লারা, জনতার উচ্ছ্বাসে আপ্লুত কিংবদন্তি]

বাঁকুড়ার সাংসদ তথা দলের রাজ্য সহ সভাপতি সুভাষ সরকারের কথায়, ”এই ভিড় দেখে মনে হচ্ছে এটা নির্বাচনী জনসভা। পুরুলিয়া এর সাংসদ জোতির্ময় সিং মাহাতো অভিযোগের সুরে বলেন, ”CAA নিয়ে তৃণমূল আন্দোলন করছে। অথচ এই আইন পাশ হওয়ার দিন সংসদে তৃণমূলের আট সাংসদ অনুপস্থিত ছিলেন। কেন তাঁরা গরহাজির ছিলেন, তা তৃণমূলকে জানাতে হবে।”

ছবি: সুনীতা সিং।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement