BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৮  সোমবার ১০ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরে কাকু-কাকিমার উপর ‘হামলা’! গ্রেপ্তার জাতীয়স্তরের কবাডি খেলোয়াড়

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 30, 2021 3:46 pm|    Updated: April 30, 2021 4:44 pm

mass-beaten

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্পত্তি নিয়ে বিবাদ গড়াল ‘হামলা’য়। যার জেরে প্রাণ গেল এক ব্যক্তির। আর সেই অভিযোগেই গ্রেপ্তার করা হল জাতীয় মহিলা কবাডি দলের খেলোয়াড় (National Woman Kabaddi Team) পায়েল চৌধুরীকে। গোটা ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হুগলির চন্দননগরে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চন্দননগর (Chandannagar) গড়ের ধার এলাকায় পায়েল চৌধুরীর বাড়ির লাগোয়া তাঁর কাকা শ্যামল চৌধুরীর বাড়ি। সম্পত্তি নিয়ে কাকু-কাকিমার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বচসায় জড়িয়েছিলেন পায়েল ও তাঁর পরিবার। স্থানীয় বাসিন্দারা মধ্যস্থতা করতে এলে পালটা তাঁদের হুমকি দেওয়া হত।

[আরও পড়ুন: কেন্দ্র ও রাজ্যে ভ্যাকসিনের পৃথক দাম কেন? মোদি সরকারকে বিঁধল সুপ্রিম কোর্ট]

বৃহস্পতিবার রাতে সেই বচসা চরমে পৌঁছায়। অভিযোগ, বাইরে থেকে কিছু লোকজন নিয়ে বাড়ির ভিতর থেকে পায়েল ও তাঁর কাকার বাড়ির কমন দেওয়াল ভাঙা হচ্ছিল। বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে কবাডি খেলোয়াড় ও তাঁর বাবা বহিরাগত কয়েকজন যুবককে নিয়ে কাকু ও কাকিমার উপর চড়াও হন। ঘটনায় গুরুতর আহত হন কাকিমা মহুয়া চৌধুরী।

দম্পতির আর্তনাদে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। দুই বহিরাগতকে ধরেও ফেলেন তাঁরা। কিন্তু তাদের মধ্যেই একজন মারধর খাওয়ার ভয়ে সোজা বাড়ির ছাদ দিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। সেই সময়ই নিচে পড়ে যায় সে। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় বলে খবর। স্বাভাবিকভাবেই এলাকায় তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর দেওয়া হয় চন্দননগর থানায়। বহিরাগতদের দিয়ে কাকু-কাকিমার উপর হামলার অভিযোগে পায়েল, তাঁর বাবা, মা এবং এক বাইরের যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাঁদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির (IPC) একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। মহুয়া চৌধুরীর চিকিৎসা চলছে বলে জানা গিয়েছে। তবে আত্মীয়রাই এমন কাণ্ড করায় রীতিমতো আতঙ্কে রয়েছেন প্রবীণ ওই দম্পতি।

[আরও পড়ুন: অমানবিক! ওষুধ কিনতে যাওয়ার নাম করে করোনা আক্রান্ত ঠাকুমাকে ফেলে পালাল নাতি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement