৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: বিন্দু-বিন্দু থেকে সিন্ধু হয়৷ প্রচলিত এই কথাকেই কার্যত বাস্তবে প্রমাণিত করেছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন৷ আর তার জন্যই প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে দেশের সেরার শিরোপা অর্জন করেছে তারা৷ প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনা প্রকল্পে সর্বোচ্চ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য প্রধানমন্ত্রী এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে জেলা প্রশাসন৷ ২০১৪ সাসাল থেকে দেশের সর্বত্র প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে যায়৷ এই জেলা তাঁর সর্বাগ্রে থেকে গ্রাহকদের উৎসাহিত করা শুরু করে৷ জেলার কোনায়-কোনায় এই প্রকল্প সম্বন্ধে সচেতনতা আনতে সংগঠিতভাবে প্রয়াস চালায় জেলা প্রশাসন৷ প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, প্রকল্পের জন্মলগ্ন থেকেই জেলায় একটি কমিটি গঠন করা হয়৷ এই কমিটির কাজ ছিল ব্লক স্তরে এই প্রকল্পের সম্বন্ধে ক্যাম্প করে মানুষকে সচেতন করা এবং এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা৷ প্রশাসন সূত্রে আরও জানা যায়, জেলার সর্বত্র ক্যাম্প করা ছাড়াও, রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পকেও প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়৷

কন্যাশ্রী, শিক্ষাশ্রী, যুবশ্রীর মতো প্রকল্পের জন্য ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের প্রয়োজন হয়৷ তাই এই সব প্রকল্পগুলির বেনিফিশিয়ারিদের জন্য প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া হয়৷ এর ফলে অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় না করেই সরকারি প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট পেয়ে যান গ্রাহকরা৷ কৃষকদের এবং ক্ষুদ্র শিল্পকেও এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হয়৷ উত্তর ২৪ পরগনা জেলাশাসক মনমিত নন্দা জানান, “২০১৬-র ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত জেলা থেকে প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনা অন্তর্গত মোট ১৭ লক্ষের বেশি অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে৷” প্রশাসনের কর্তাদের থেকে জানা যায়, কেন্দ্রীয় সরকারের একটি বিশেষ দল এসে পর্যবেক্ষণ করে যাওয়ার পর এই পুরস্কার দেওয়া হয়৷ উত্তর পূর্বাঞ্চল ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ছাড়া দেশের বাকি সব রাজ্যের জেলার তুলনায় সব থেকে বেশি অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলায়৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং