১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সম্পত্তি লিখে দেওয়ার জন্য চাপ, বৃদ্ধা মাকে হাঁসুয়ার কোপ ছেলের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 21, 2018 8:03 pm|    Updated: August 21, 2018 8:03 pm

Old woman complains against her son

রাজা দাস, বালুরঘাট: পুত্র ও পুত্রবধূর  বিরুদ্ধে বালুরঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা। অভিযোগ, বাড়ি ও সম্পত্তি ছেলের নামে লিখে না দেওয়ায় তাঁর উপর অত্যাচার চালাত ছেলে ও পুত্রবধূ। শেষ পর্যন্ত ছেলে মাকে হাঁসুয়ার কোপ দেয় বলে অভিযোগ। অবশেষে আর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আক্রান্ত বৃদ্ধা হাসপাতাল থেকে সরাসরি বালুরঘাট মহিলা থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

জানা গিয়েছে, বালুরঘাট শহরে থাকেন প্রাচ্য ভারতী এলাকার বাসিন্দা পেশায় তবলাবাদক বৃদ্ধ প্রদীপ চৌধুরি এবং তাঁর স্ত্রী গীতা চৌধুরি। ছেলে লিটন প্রতিদিন তাঁদের উপর অত্যাচার চালাত বলে অভিযোগ। লিটন পেশায় টোটোচালক। লিটনের স্ত্রীও নিয়মিত শ্বশুর ও শাশুড়ির উপর অত্যাচার করত বলে অভিযোগ। বাড়ি-সহ অন্য সম্পত্তি ছেলের নামে লিখে দেওয়ার জন্য দীর্ঘদিন ধরে বাবা মায়ের উপর অত্যাচার চালাত সে। তাতে ইন্ধন দিচ্ছে ছেলের স্ত্রীয়ের শ্বশুর বাড়ির লোকজন। 

মোটরবাইক রাখা নিয়ে বচসা, বাজারের মধ্যেই গুলিতে মৃত ১ ]

সোমবার বচসা চরমে উঠে। অভিযোগ, ছেলে লিটন গীতা চৌধুরিকে হাঁসুয়া দিয়ে মারে। আহত গীতাদেবীকে ভরতি করা হয় বালুরঘাট হাসপাতালে। মঙ্গলবার তিনি সামান্য সুস্থ হলে তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এরপরই পুত্র ও পুত্রবধূর বিরুদ্ধে বালুরঘাট মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই বৃদ্ধা। তিনি বলেন, তাঁর ছেলে তাঁকে তো বটেই, বৃদ্ধ বাবাকেও ছেড়ে কথা বলে না। গায়ে হাত তোলে। এমনকী, তাঁদের একদিন বাড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করছিল বলেও অভিযোগ জানান তিনি। কিন্তু এবার প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে ছেলে, অভিযোগ বৃদ্ধার। তিনি তাঁর ছেলে ও পুত্রবধূর কঠোর শাস্তির দাবি করেন। বালুরঘাট মহিলা থানার সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযোগ দায়ের হতেই পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। বিষয়টি জেলা প্রোটেকশন আধিকারিককেও জানানো হয়েছে।

সিটি স্ক্যান রিপোর্ট পেতেই এক সপ্তাহ, রোগীর মৃত্যুতে ধুন্ধুমার বর্ধমান মেডিক্যালে ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে