৭ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: পিঁয়াজের ঝাঁজে ইতিমধ্যেই নাভিঃশ্বাস উঠেছে সাধারণের। পরিস্থিতি আয়ত্তে রাখতে পদক্ষেপও নিয়েছে প্রশাসন। মানুষের কথা চিন্তা করে সুফল বাংলা স্টলে ৫৯ টাকায় বিকোচ্ছে পিঁয়াজ। কিন্তু তা ঘিরেই অশান্তি। বাধ্য হয়ে পুলিশি পাহারায় পিঁয়াজ বিকোতে হচ্ছে বিক্রেতাদের। এই ছবি দেখা গিয়েছে বীরভূমের বোলপুরে।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে কয়েকদিন ধরেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ৫৯ টাকা কিলোয় মিলছে পিঁয়াজ। তবে পরিবার পিছু দেওয়া হচ্ছে মাত্র ১কেজি। এই নিয়মের অন্যথা হয়নি বোলপুরেও। সোমবার সকালে বোলপুরের সুফল বাংলার স্টলে শুরু হয় পিঁয়াজ বিক্রি। সকাল থেকেই পিঁয়াজ কিনতে লাইন দেন ক্রেতারা। শান্ত পরিস্থিতিতেই বেশ কিছুক্ষণ চলে বেচাকেনা। পিঁয়াজ তলানিতে ঠেকতেই ১ কেজির পরিবর্তে সকলকে ৫০০ গ্রাম পিঁয়াজ দেওয়া শুরু হয় সুফল বাংলা স্টলে। এতেই ক্ষেপে যান একদল। দাবি জানাতে থাকেন যে তাঁদের প্রত্যেককে ১ কিলো করেই পিঁয়াজ দিতে হবে। ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে শুরু হয় বচসা। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই বেশ কিছু লোক সুফল বাংলার স্টলে ঢুকে পিঁয়াজ নিয়ে চম্পট দেয়। নজরে পড়তেই অভিযুক্তদের বাধা দেওয়া হলে হুমকির মুখে পড়তে হয়। ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, সেই কারণে মঙ্গলবার পুলিশি পাহারায় পিঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে সুফল বাংলার স্টলে।

sufal-bangla

[আরও পড়ুন:প্রথমবার সৈকত শহরে বাণিজ্য সম্মেলন, সেজে উঠছে দিঘার কনভেনশন সেন্টার]

ওই সুফল বাংলা স্টলের এক কর্মীর কথায়, “মানুষ যে এই ভাবে পিঁয়াজ লুট করতে পারে, তা ভাবতে পারিনি। বাধা দিয়েছিলাম বলে দেখে নেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়েছে। কতদিনে স্বাভাবিক হবে পরিস্থিতি জানি না।” এক ক্রেতা জানান, তিনি যখন সুফল বাংলার স্টলে পৌঁছেছেন তখন তা ফাঁকা। এরপর তিনি গোটা বিষয়টি জানতে পারেন। তবে কীভাবে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা সম্ভব তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘ক্লাসে অনুপস্থিত থেকে ঘেরাও করলে নম্বর নয়’, বর্ধমানে পড়ুয়াদের কড়া বার্তা শিক্ষামন্ত্রীর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং