BREAKING NEWS

৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জলপাইগুড়িতে বিজেপির মহিলা প্রার্থীর বাড়িতে হামলা, আক্রান্ত দলের কর্মী-সমর্থকরাও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 13, 2018 2:43 pm|    Updated: January 10, 2019 4:07 pm

Panchayat poll violence in Bengal, BJP candidate attacked

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: পঞ্চায়েতটি তৃণমূলের দখলে। একটি আসন মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত। সেই আসনে শাসকদলের প্রার্থী খোদ পঞ্চায়েত প্রধানের স্ত্রী। হামলার মুখে পড়লেন বিজেপির মহিলা প্রার্থী। অভিযোগ, বিরোধী দলের ওই মহিলার বাড়িতে রীতিমতো তাণ্ডব চালিয়েছেন শাসকদলের কর্মী-সমর্থকরা। ভেঙে দেওয়া হয়েছে এক মোটরবাইক। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের বারোপেটিয়া পঞ্চায়েত এলাকায়। বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি শ্যাম প্রসাদ বলেন, ‘জলপাইগুড়িতে এই সন্ত্রাসের বাতাবরণ কোনওদিন ছিল না। এবার পঞ্চায়েত ভোটে যেভাবে সন্ত্রাস চালাচ্ছে, তাতে করে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। আমরা জেলাশাসকের কাছে একটি অভিযোগ জমা করেছি।‘ বিজেপি বিরুদ্ধে দলের কর্মীদের উপর হামলার পালটা অভিযোগ করেছে তৃণমূল।

[জরুরি ভিত্তিতে পঞ্চায়েত মামলার শুনানি নয়, ডিভিশন বেঞ্চে রাজ্যের আরজি খারিজ]

এলাকায় বিজেপি কর্মী বলেই পরিচিত জীবিতেশ রায়। জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের বারোপেটিয়া গ্রামপঞ্চায়েতে মহিলা সংরক্ষিত আসনে গেরুয়ার শিবিরের প্রার্থী তাঁর স্ত্রী দীপিকা রায়। ওই আসনে আবার পঞ্চায়েত প্রধানের স্ত্রীকে প্রার্থী করেছে শাসকদল। আর এই দুই মহিলার নির্বাচনী লড়াইকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল বারোপেটিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৭৭ নং বুথ এলাকায়। আক্রান্ত হলেন বিজেপি প্রার্থী দীপিকা রায়। অভিযোগ, বৃহস্পতিবার দুপুরে দীপিকাদেবীর বাড়িতে চড়াও হন শাসকদলের কর্মী-সমর্থকরা। চলে তুমুল ভাঙচুর। বাড়ির সামনে রাখা একটি মোটরবাইকও ভেঙে দেওয়া হয়। বিজেপি অভিযোগ, দিনভর দফায় দফায় তাঁদের কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতে ভাঙচুর চলে। বেশ কয়েকটি আগুন লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়। এলাকায় থাকতে গেলে বিজেপি করা যাবে না বলে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। জানা গিয়েছে, আতঙ্কে ঘর ছেড়েছেন জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের বারোপেটিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বিজেপি কর্মীরা। বৃহস্পতিবার রাতে বিজেপির পার্টি অফিসে আশ্রয় নেন তাঁরা। আক্রান্ত বিজেপি কর্মী জীবিতেশ রায় বলেন, ‘আমার স্ত্রী এবার বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন। সেই কারণেই আমাদের উপর আক্রমন করা হল। বাড়ি ভাঙচুর করা হল। আমরা ভয়ে লুকিয়ে আছি।‘

[একই আসনে দুই দলের হয়ে প্রার্থী! গৃহবধূর কাণ্ড দেখে চোখ কপালে গ্রামবাসীদের]

বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি শ্যাম প্রসাদ বলেন, ‘জলপাইগুড়িতে এই সন্ত্রাসের বাতাবরণ কোনওদিন ছিল না। এবার পঞ্চায়েত ভোটে যেভাবে সন্ত্রাস চালাচ্ছে, তাতে করে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। আমরা জেলাশাসকের কাছে একটি অভিযোগ জমা করেছি।‘ বিজেপির বিরুদ্ধে পালটা হামলার অভিযোগ করেছে তৃণমূল। দলের নেতা কৃষ্ণ দাস বলেন, ‘আমাদের কেউ কারও উপর আক্রমণ করেনি। বরং আমাদের কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতেই হামলা চালাচ্ছে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা।‘ কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে শাসক ও বিরোধী পক্ষ।

ছবি: সুবীর এস

[আদিবাসী ভোটারের মন পেতে ভরসা ভাষাতে, সাঁওতালিতে প্রচার তৃণমূলের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে