BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কোটা থেকে বিষ্ণুপুরে ফিরল পড়ুয়ারা, মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন অভিভাবকরা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 2, 2020 3:09 pm|    Updated: May 2, 2020 3:09 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: রাজস্থানের কোটা থেকে রাজ্য সরকারের ব্যবস্থাপনায় বাড়ি ফিরল দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ছাত্রছাত্রীরা। শুক্রবার রাতে আটকে পড়া ওই ছাত্রছাত্রীরা বাসে করে এসে নামে ডায়মন্ড হারবার জেলা পুলিশের বিষ্ণুপুর থানার ভাসা ১৪ নম্বরে পথের সাথী বাস স্ট্যান্ডে। সেখানে তাদের স্বাগত জানান জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের পদস্থ আধিকারিকরা। ফেরত আসা ছাত্রছাত্রীদের শারীরিক পরীক্ষার পর অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাদের।

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ক্যানিং, সোনারপুর, চম্পাহাটি, ফলতা, ডায়মন্ডহারবার, রায়দিঘি, কাকদ্বীপ প্রভৃতি এলাকা থেকে রাজস্থানের কোটায় পড়তে গিয়েছিল ছাত্রছাত্রীরা। লকডাউনের জেরে আটকে পড়েছিল তারা। বাড়ি ফিরতে না পেরে ক্রমেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছিল ওই ছাত্রছাত্রীরা। চরম উদ্বেগে দিন কাটছিল অভিভাবকদেরও। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে শেষ পর্যন্ত শুক্রবার রাতে বাড়ি ফিরল ৩৫ জন ছাত্রছাত্রী। রাত সাড়ে দশটা নাগাদ রাজ্যসরকারের ব্যবস্থাপনায় তাদের বাসটি এসে থামে ডায়মন্ডহারবার পুলিশ জেলার ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে বিষ্ণুপুরের পথের সাথী বাস স্ট্যান্ডে। সেখানে অপেক্ষা করছিলেন ওই ছাত্রছাত্রীদের উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা। ভিনরাজ্য ফেরত ছাত্রছাত্রীদের থার্মাল স্কিনিং ও শারীরিক পরীক্ষানিরীক্ষা করেন চিকিৎসকরা।

[আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় করোনার থাবা, সদ্যোজাত কোলে হাসিমুখে বাড়ি ফিরলেন যুদ্ধজয়ী]

তারপরই তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এরপর সরকারি ব্যবস্থাপনায় গাড়িতে করে সকলকে পৌঁছে দেওয়া হয় যে যার বাড়িতে। ঘরে ফিরতে পেরে দারুণ খুশি ছাত্রছাত্রীরা। দেশের ঘোর দুর্যোগের সময় ছেলেমেয়েদের কাছে পেয়ে আনন্দিত অভিভাবকরাও। ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকরা সকলেই রাজ্য সরকারের এই কাজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীকেও।

[আরও পড়ুন: ‘নিশ্চিন্তে বাড়ি ফিরব ভাবিনি’, রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদজ্ঞাপন কোটায় আটকে পড়া পড়ুয়াদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement