BREAKING NEWS

৩১ আশ্বিন  ১৪২৮  সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চার বছরের শিশুকে ভুল ভ্যাকসিন দেওয়ার অভিযোগে ধুন্ধুমার মালবাজারে

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 25, 2018 7:12 pm|    Updated: August 25, 2018 8:48 pm

Patient in problem at Malbazar hospital family alleges negligence

অরূপ বসাক, মালবাজার: চার বছরের এক শিশুকে ভুল ভ্যাকসিন দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল মালবাজার মহকুমার চালসার মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে৷ পরিস্থিতি সামলাতে হাসপাতাল চত্বরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়৷ শিশুর পরিবারের তরফে বিএমওএইচ সৌমেন দত্তকে দীর্ঘক্ষণ ঘেরাও করে রাখা হয় বলে অভিযোগ৷ পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে৷

[এবার অনলাইনে বুকিং করা যাবে ‘তন্তুজ’ শাড়ি, তাঁতিদের জন্য বিশেষ শিবির]

জানা গিয়েছে, গত ২০ জুলাই মেটেলি ব্লকের বিধাননগর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাথাচুলকা বটতলার বাসিন্দা মহাবুল ইসলামের চার বছরের ছেলেকে কামড় একটি কুকুর৷ ওই দিনই মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়৷ গত ২৫ ও ২৮ জুলাই ও পয়ালা আগস্ট ভ্যাকসিনও দেওয়া হয়৷ চতুর্থ ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য গত ২২ আগস্ট ফের মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে যাওয়া হয় ওই শিশুকে৷ অভিযোগ, কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুকে ভ্যাকসিন না দিয়ে মাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে রেফার করে দেয়৷ ধীরে ধীরে চার বছরের ওই শিশুটির অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়৷ সেখানেও অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকেরা তাঁকে কলকাতায় রেফার করেন৷

[প্রেমের প্রস্তাব খারিজ হতেই ছাত্রীর গলার হার ছিনিয়ে চম্পট যুবকের]

শিশুর পরিবারের সদস্যরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে নিয়ে যায়৷ সেখানেও চিকিৎসকেরা জানান, শিশুটি জলাতঙ্কে আক্রান্ত হয়েছে৷ বাঁচার সম্ভাবনা খুবেই কম৷ এরপর এদিন দুপুরে ছেলেটিকে নিয়ে আসা হয় মঙ্গলবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে৷ শিশুকে ভুল ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন শিশুর পরিবার৷ সঙ্গে জুড়ে বসেন স্থানীয়রাও৷ বিএমওএইচ সৌমেন দত্ত ও মেটেলি থানার ওসি প্রবীর দত্তকে ঘিরে চলে বিক্ষোভ৷ পরে সি এই মিত্র রাইয়ের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে৷ রোগীর আত্মীয়রা ঘটনার তদন্ত-সহ অভিযুক্ত চিকিৎসকের শাস্তির দাবি করেছেন। পরে ঘটনাস্থলে আসেন মালের এসিএমওএইচ তারক বর্মণ। তিনি দীর্ঘক্ষণ রোগীর বাবা আত্মীয়দের সঙ্গে কথা বলেন৷ এদিনই ছেলেটিকে চিকিৎসার জন্য কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে পাঠানো হয়৷ এসিএমওএইচ তারক বর্মণ জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করা হবে৷ ছেলেটিকে চিকিৎসার জন্য বেলেঘাটা পাঠানো হয়েছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement