BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

১৮০০ টাকার পেট্রল কিনে মিলল শুধুই জল! আজব কাণ্ডে জলপাইগুড়িতে শোরগোল

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 13, 2020 2:24 pm|    Updated: September 13, 2020 2:27 pm

An Images

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: এ যেন সুকুমার রায়ের (Sukumar Roy) হযবরল। ছিল রুমাল আর হল বিড়াল। বাস্তব এহেন কাণ্ডেরই সাক্ষী জলপাইগুড়ি পুরসভার ইঞ্জিনিয়ার। গিয়েছিলেন গাড়িতে পেট্রোল ভরতে। পেট্রোলের বদলে পেলেন জল। একটু যেতেই বিকল হয়ে গেল গাড়ি। পাম্প কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন ভুক্তভোগী। উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের আশ্বাস পেট্রল পাম্প কর্তৃপক্ষের।

জলপাইগুড়ি পুরসভার ইঞ্জিনিয়ার যশোপ্রকাশ দেবদাস জানান, শনিবার দুপুরে জলপাইগুড়ি পাহাড়পুর এলাকার একটি পেট্রল পাম্প থেকে তাঁর গাড়িতে ১৮০০ টাকার পেট্রল (Petrol) ভরেছিলেন। জরুরি কাজে ডুয়ার্সের দিকে যাচ্ছিলেন তিনি। পাম্প থেকে বেরিয়ে ২০০ মিটার পথ যেতে না যেতেই তাঁর গাড়ি বিকল হয়ে যায় বলে অভিযোগ। এরপর তিনি স্থানীয় এক মোটর গ্যারাজে খবর দেন। সেখান থেকে মিস্ত্রি এসে গাড়ির পেট্রল পাইপ খুলে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন। আর তাতেই চক্ষু কপালে ওঠে তাঁর। দেখেন পেট্রল পাইপ দিয়ে পেট্রলের বদলে বেরচ্ছে জল। এরপর তিনি গাড়ি কোনওভাবে গ্যারাজে নিয়ে গিয়ে জমা দেন। সেখান থেকে পাম্পে গেলে তাঁরা তাদের ভুল স্বীকার করে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দেয়।

[আরও পড়ুন: টাকার লোভে নিয়মিত বৃদ্ধাকে মারধর ছেলে-বউমার! ঠাকুমাকে উদ্ধার করলেন নাতি]

যশোপ্রকাশ দেবদাসের অভিযোগ, তিনি একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজে যাচ্ছিলেন। পাম্প কর্তৃপক্ষের ভুলে তাঁর সেই কাজ বানচাল হয়ে গেল। পাশাপাশি তাঁর গাড়িতে ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।  পেট্রল পাম্প (Petrol pump) ম্যানেজার শ্যামসুন্দর আগরওয়াল বলেন, “সকালে পাম্প খুলে আমরা প্রতিদিনের মতো ট্যাংকে থাকা পেট্রল পরীক্ষা করে দেখেছিলাম। তখন সব ঠিক ছিল। এখন বর্ষাকাল তাই কোনওভাবে আমাদের ট্যাংকে জল ঢুকে গেছে। আমরা ওনাকে ১৮০০ টাকার পেট্রল দেওয়ার পর আর একজনকে পেট্রল দিতে দিতে গিয়ে বিষয়টি বুঝতে পারি। আমরা বিক্রি বন্ধ রেখে কোম্পানিকে জানিয়েছি। গাড়ির উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের পাশাপাশি সমপরিমাণ পেট্রল দেওয়া হবে যশোপ্রকাশ দেবদাসকে।”

[আরও পড়ুন: মাছের বদলে মৎস্যজীবীর জালে উঠে এল কুমির! ক্যামেরাবন্দি করতে হুড়োহুড়ি স্থানীয়দের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement