১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দীপঙ্কর মণ্ডল, বোলপুর: ‘বাংলায় দিদির সূর্য অস্ত যেতে চলেছে, তাই গুন্ডারাজ চালাচ্ছে৷ আসন টলমল, তাই দিদি ভয় পাচ্ছে৷ ২৩ মে আরও একবার ক্ষমতায় আসবে মোদি সরকার৷ এবং ওইদিন থেকে তৃণমূলের অত্যাচারী শাসন শেষের কাউন্টডাউন শুরু হয়ে যাবে৷’’ বোলপুরের ইলামবাজারের জনসভা থেকে ঠিক এই ভাষাতেই তৃণমূল সরকারকে আক্রমণ শানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তাঁর বিদেশ সফর নিয়ে বিভিন্ন জনসভাতে যে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এদিনের সভা থেকে সমালোচনাকেই হাতিয়ার করেন মোদি৷ পালটা চালে কড়া জবাব দেন তৃণমূল নেত্রীকে৷

[আরও পড়ুন: নির্বাচনে কালো টাকা খরচ করছে বিজেপি, শ্রীরামপুরের সভায় বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী]

এদিনের বক্তৃতার সিংহভাগ অংশেই শাসকদলের বিরুদ্ধে গুন্ডারাজ ও তোলাবাজি চালানোর অভিযোগে সরব হন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি অভিযোগ করেন, ‘‘দিদির গুন্ডাতন্ত্রের শক্তি থাকলে, আমাদের লোকতন্ত্রের শক্তি রয়েছে৷ দিদি যত সমস্যা তৈরি করবে, গুন্ডাগিরি চালাবে, ততই বাংলায় পদ্ম ফুটবে৷ ক্ষমতায় এসে তৃণমূলের গুন্ডারাজকে দূর করব’ই৷’’ এদিনের সভা থেকে আবারও মুখ্যমন্ত্রীকে ‘স্পিড ব্রেকার’ বলে কটাক্ষ করেন তিনি৷ জানান, বাংলার উন্নয়নের স্পিডে ব্রেক লাগিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কেবল বর্তমানই নয়, বাংলার মানুষের ভবিষ্যৎ নিয়েও খেলা করছেন তিনি৷ প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগ, ‘‘বাংলায় যেকোনও কাজ করতে গেলেই তৃণমূলের নেতাদের তোলা দিতে হয়৷ ঘুষ ছাড়া বাংলায় কোনও কাজই হয় না৷’’

বিদেশ সফর নিয়ে বারবারই বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়তে হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে৷ কংগ্রেস থেকে শুরু করে তৃণমূল, সমস্ত বিরোধী দলও মোদির বিরুদ্ধে একে শক্ত হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছে৷ ইলামবাজারের জনসভা থেকে এদিন বিরোধীদের সেই সমালোচনাকেই হাতিয়ার করেন মোদি৷ উত্তরে বলেন, ‘‘দিদি বলছেন, চাওয়ালা পাঁচবছরে কেবল বিদেশ যাত্রা করছে৷ কিন্তু আজ সমগ্র বিশ্ব ভারতের ক্ষমতা দেখতে পাচ্ছে৷ কারণ, ওই বিদেশ যাত্রার জন্যই ভারতের বলিষ্ঠ আওয়াজ বিশ্বের দরবারে পৌঁছে যাচ্ছে৷ পাঁচ বছর আগে কারও সমর্থন পেতে গেল দম ফুরিয়ে যেত৷ আজ সবাই ভারতের পাশে রয়েছে৷ আগে যে দেশ বেশি দামে তেল ও গ্যাস বিক্রি করত৷ এখন তারা কম দামে ভারতকে গ্যাস ও তেল দিচ্ছে৷’’

[আরও পড়ুন: জোড়া ফুল চিহ্নে ভোটের আবেদন জানাচ্ছেন কংগ্রেস বিধায়ক! ]

এখানেই শেষ নয়, তাঁর বিদেশ যাত্রার আরও বেশকিছু সুফল এদিনের সভায় উপস্থিত মানুষের সামনে তুলে ধরেন তিনি৷ জানান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে ভারত৷ সেই ব্যাংকগুলিতে কোনও ভারতীয় কালো টাকা জমা করলেই, সেই ‘রিয়েল টাইম ইনফরমেশন’ চলে আসবে ভারতের কাছে৷ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীকে সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান দিয়েছে সৌদি আরব৷ এবং সেই বিষয়েও বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে নরেন্দ্র মোদিকে৷ এদিন সেই সমস্ত সমালোচনার জবাব দেন তিনি৷ জানান, ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বের কারণেই সেদেশের জেলে বন্দি আটশো ভারতীয়কে মুক্তি দিয়েছে সৌদি আরব৷ হজ যাত্রীদের কোটা বাড়ান হয়েছে৷ আফগানিস্তানে জঙ্গিদের দ্বারা অপহরণ হওয়া একটি বাঙালি মহিলাকে কেন্দ্রীয় সরকার জঙ্গি ডেরা থেকে উদ্ধার করেছে এনেছে বলেও দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী৷ এছাড়া প্রত্যেক জনসভার মতোই এদিনও প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, ‘‘বাংলার সরকার দুর্গাপুজো, সরস্বতী পুজো, রাম নবমী পালন করতে দেয় না৷ কিন্তু সৌদি আরবে হিন্দু মন্দির তৈরি হচ্ছে৷’’ এছাড়া তিনি দাবি করেন, দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের সঙ্গে চলা সীমাবিবাদ মিটিয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার৷ সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করে জঙ্গিদের ঘরে ঢুকে মারা হয়েছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং