২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অমিত শাহর সভামঞ্চের পাশে বোমাবাজি, তীব্র উত্তেজনা কোচবিহারে

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: December 6, 2018 11:28 am|    Updated: December 6, 2018 11:36 am

Political tension in Cooch Behar

বিক্রম রায়, কোচবিহার: বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচির ঠিক ২৪ ঘণ্টা আগে উত্তেজনা ছড়াল নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের ঝিনাইডাঙা এলাকায়৷ বিজেপির অভিযোগ, সভা বানচাল করার লক্ষ্যে বুধবার রাতে একদল দুষ্কৃতী ঝিনাইডাঙার সভামঞ্চ লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে৷ ছিঁড়ে দেওয়া হয় পোস্টার, ব্যানার৷ এলাকায় বেশ কয়েকটি বোমা ছুঁড়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা৷ বিজেপির সভামঞ্চ লক্ষ্য করে এলাকায় বোমাবাজির ঘটনায় বৃহস্পতিবার তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ৷ এলাকায় আতঙ্ক কাটাতে শুরু হয় পুলিশি টহল৷

[উঠল পারদ, সপ্তাহ শেষে দাপট দেখাতে পারে উত্তুরে হাওয়া]

বুধবার গভীর রাতে বোমাবাজির এই ঘটনার পিছনে শাসকদলের হাত রয়েছে বলে শূন্যে ঢিল ছুঁড়তে থাকেন স্থানীয় বিজেপি নেতা-কর্মীরা৷ তাঁদের অভিযোগ, এমন কোনও হামলা হতে পারে, এই আশঙ্কায় গত তিন রাত ধরে সভাস্থল পাহারা দিচ্ছিলেন বিজেপি কর্মীরা৷ কিন্তু, পালা করে রাত পাহারার কাজ চললেও বুধবার রাতে হঠাৎ কেন এই হামলা? এর পিছনে কি বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বই মূল কারণ? প্রশ্ন তুলছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷ তাঁদের পালটা অভিযোগ, সভাকে কেন্দ্র করে অশান্তি হতে পারে, এই আশঙ্কায় পুলিশের তরফেও কোনও অনুমতি দেওয়া হয়নি৷ অনুমতি না থাকা সত্ত্বেও কীভাবে বিজেপির নেতা কর্মীরা সভার প্রস্তুতি নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন৷

[চোলাই কারবারের রমরমা ঠেকাতে উন্নয়নই হাতিয়ার জেলা প্রশাসনের]

তবে, প্রশাসনের তরফে সভার অনুমতি দেওয়া না হলেও রথযাত্রা কর্মসূচি সফল করতে জেলাজুড়ে প্রচারে নেমেছে বিজেপি৷ পালটা প্রচার অভিযানে নেমেছে শাসক তৃণমূলও৷ কোচবিহারে অমিত শাহর সভাস্থল-সহ জেলার সর্বত্র ব্যানার ও পোস্টারে ছেয়ে দিয়েছে শাসকদল৷ কোচবিহারবাসীর ভাবাবেগও উসকে দেওয়া হয়েছে ব্যানার ও পোস্টারে৷ ফলে, সভা শুরুর আগে বোমাবাজি ও জেলাজুড়ে তৃণমূলের লাগাতার প্রচারে অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি নেতৃত্ব তা দলের সর্বভারতীয় সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়র কথাতেই স্পষ্ট। তিনি জানিয়েছেন, ‘‘কোচবিহার রাজবাড়ির কুলদেবতা মদনমোহনের আশীর্বাদ নিয়েই রথযাত্রার সূচনা হবে৷’’ বুধবার অমিত শাহর সভাস্থলের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন তিনি৷ যদিও শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত সভার প্রশাসনিক অনুমতি মেলেনি। ফলে, সভা আদৌ হবে কি না, তা নির্ভর করছে হাই কোর্টের শুনানির উপর৷  

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে