BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘বহিরাগত নয়, বালির মানুষকে প্রার্থী চাই’, মমতার ছবি দেওয়া পোস্টারের নিশানায় বৈশালী ডালমিয়া?

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 1, 2020 4:14 pm|    Updated: December 1, 2020 5:58 pm

Poster with no name but indicates 'outsider' appears at Bali sparks new row| Sangbad Pratidin

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া: ‘বহিরাগত নয়, বালির মানুষকেই দলের প্রার্থী হিসেবে চাই।’ হাওড়ার বালিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ছবি দেওয়া এই পোস্টার ঘিরে তরজা শুরু রাজনৈতিক মহলে। একুশের লড়াইয়ে বালি থেকে কোনও বহিরাগতদের প্রার্থী না করার আরজি জানানো হয়েছে পোস্টারে। যদিও তাতে কারও নাম নেই। বাংলা, হিন্দি, উর্দু ভাষায় লেখা একাধিক পোস্টার দেখা গেল বালির (Bali) বিভিন্ন জায়গায়। ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের পর্যবেক্ষণ, এই মুহূর্তে বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়াকে আর পছন্দ করছেন না দলের স্থানীয় কর্মী, সমর্থকরা। তবে তা প্রচ্ছন্ন রেখেই এমন পোস্টার।

এই মুহূর্তে পোস্টার রাজনীতিতে বেশ সরগরম বঙ্গ রাজনীতি। শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিসভা ছাড়ার আগে থেকেই অরাজনৈতিক পোস্টার – ‘আমরা দাদার অনুগামী’ তোলপাড় ফেলেছিল। তিনি মন্ত্রিত্ব ত্যাগের পর রাজ্যের আরও নানা প্রান্তে তা দেখা গিয়েছে। আবার সম্প্রতি কামারহাটি এলাকায় মদন মিত্রর ছবি দেওয়া পোস্টার বার্তা ছিল – মানুষের পাশে আছি। একুশের ভোটের আগে এসব আসলে কীসের ইঙ্গিত, তা নিয়ে জোর জল্পনা সাধারণের মধ্যেও। তারই মধ্যে নতুন জল্পনা উসকে উঠল বালির পোস্টার ঘিরে।

[আরও পড়ুন: ‘স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছি না’, সুর চড়িয়ে তৃণমূল ছাড়ার ইঙ্গিত ‘কংগ্রেস’ বিধায়কের]

পোস্টারটিতে লেখা – ”বালির সক্রিয় তৃণমূল কর্মীদের মাননীয় দিদির কাছে অনুরোধ, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বালিতে কোনও বহিরাগত নয়, বালির মানুষকেই দলের প্রার্থী হিসেবে চাই।” এই পোস্টারে বাংলা, হিন্দি, উর্দু তিনটি ভাষাতেই লেখা, সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া। অন্য কারও নাম না থাকলেও বুঝতে তেমন অসুবিধা নেই যে, পোস্টারটিতে ‘বহিরাগত’ বলতে ঠিক কাকে নিশানা করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ২ দিন নিখোঁজ থাকার পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল শিশুকন্যার দেহ, খুন নাকি দুর্ঘটনা? ধন্দে পুলিশ]

২০১৬ সালে বালি থেকে তৃণমূলের হয়ে ভোটে লড়াই করে বিধায়ক হয়েছিলেন বৈশালী ডালমিয়া। তিনি বালির স্থানীয় বাসিন্দা নন, পাকাপাকিভাবে থাকেন কলকাতায়। ফলে তিনিই যে তৃণমূল কর্মীদের নিশানায়, তা স্পষ্ট। একুশে আর তাঁকে প্রার্থী হিসেবে চান না স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা, পোস্টার সেই বার্তাই স্পষ্ট। এসব নিয়ে অবশ্য মাথা ঘামাতে তেমন রাজি নন বৈশালী। তাঁর কথায়, ”আমার নিজের টাকায় কেনা বাড়ি রয়েছে বলিতে। আমি সেখানে থাকি, বহিরাগত নই। ফলে কিছু যায় আসে না।” এ বিষয়ে এখনও হাওড়া জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে