BREAKING NEWS

১৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ মে ২০২০ 

Advertisement

চরম সংকটে রাজ্যবাসী, উপার্জনের অর্থ ত্রাণ তহবিলে দিলেন মেদিনীপুর সংশোধনাগারের বন্দিরা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 1, 2020 12:50 pm|    Updated: April 1, 2020 1:35 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: ওরা সকলেই অপরাধী। তাই বর্তমান ঠিকানা মেদিনীপুর সংশোধনাগার। এক কথায় তথাকথিত সমাজ থেকে অনেকটাই দূরে তাঁরা। কিন্তু রাজ্যবাসীর এই বিপদে এগিয়ে এসেছেন এই সকল মানুষও। জেলে কাজ করে যা উপার্জন হয়েছে তা মিলিয়ে ৬৬হাজার টাকা তুলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে। তাদের এই উদ্যোগের প্রশংসা করছেন সকলেই। ধন্যবাদ জানিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী।

করোনা আতঙ্ক ধরিয়েছিল তাদের মনেও। নিজেরা তথাকথিত সমাজের বাইরে থাকলেও তাদের পরিজনরাতো এই সমাজেরই অংশ। তাই দেশের বিপদ এক অদ্ভুত ভয়ের সঞ্চার করেছিল তাঁদের মনেও। এরপর মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করলেন ত্রাণ তহবিলের কথা। তখনই মেদিনীপুর সংশোধনাগারের ১২ বন্দি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন যে, মারণভাইরাসের বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে শামিল হবেন তারাও। সেই মতোই জেলে কাজ করে যা উপার্জন হয়েছে, তা এক জায়গায় করেন। ১২জনের উপার্জনে মোট ৬৬ হাজার পাঁচশো টাকা হয়। সোমবার সেই টাকাই ত্রাণ তহবিলে তুলে দেন ওই ১২ জন।

[আরও পড়ুন: ‘ভয় পাবেন না করোনাকে’, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে সাহস জোগাচ্ছেন হাবড়ার ছাত্রী]

জানা গিয়েছে, এদের মধ্যে ৭ জন সংশোধনাগারের ক্যান্টিনে কাজ করেন। বাকি ৫ জন অন্যকাজে জড়িত। বন্দিদের কথায়, “সবাই দূরে থাকলেও আমরা তো সমাজের বাইরে নই। এই সমাজের প্রতি, দেশের প্রতি আমাদেরও দায়িত্ব আছে। সেই কারণেই সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করলাম।” বিষয়টি জানার পর মঙ্গলবারই ওই বন্দিদের ধন্যবাদ জানাতে যান এডিজি (কারা) পীযূষ পান্ডে। ফুল-মিষ্টি তুলে দেন তাদের হাতে। তাদের এই উদ্যোগে অভিভূত মেদিনীপুর জেলের সুপারও।

[আরও পড়ুন: মানবিক, রেশন কার্ডহীন ১৬ লক্ষ মানুষকে ছ’মাসের ফুড কুপন দিচ্ছে রাজ্য]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement