BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বটলিং প্ল্যান্টে সংকট, মিলছে না সিলিন্ডার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 1, 2016 1:53 pm|    Updated: November 1, 2016 2:16 pm

Problem in Budge Budge bottling plant, cylinder is not properly available

তরুণকান্তি দাস: উৎসবের মরশুমে রান্নার গ্যাসের সঙ্কট আগেও দেখেছে বাংলা৷ কিন্তু এবার যে রকম অভাব দেখা দিয়েছে তা বোধহয় সব রেকর্ড ছাপিয়ে যাবে৷ অনেক জায়গায় বুকিংয়ের পর এক মাস কেটে গেলেও মিলছে না সিলিন্ডার৷ বজবজ বটলিং প্ল্যান্টে রাজনৈতিক ঝামেলার জেরে উৎপাদন অনিয়মিত৷ খাদ্যরসিক বাঙালির হেঁশেলে যে অস্থিরতার ধাক্কা সামলাতে গলদঘর্ম গৃহকর্ত্রীদের৷

বিভিন্ন গ্যাস জোগানদার সংস্থা সূত্রে খবর, এখন একমাস গড়িয়ে যাচ্ছে বুকিংয়ের গ্যাস পেতে৷ ডিলারের অফিসে লম্বা লাইন, একটা সিলিন্ডারের জন্য ঝগড়া যেন নিত্য চিত্র৷ এখন সহজে বাড়ির বরাদ্দ রান্নার গ্যাস হোটেল, রেস্তোরাঁয় যায় না৷ তার জন্য পৃথক ব্যবস্থা রয়েছে৷ কিছু কালোবাজারি হয় বটে, তবে তাতে আম-আদমির হেঁশেলে ইন্ধনের অভাব পাহাড়চূড়োয় উঠে বসবে? ডিলাররাই যে বলছেন, “প্রায় একমাসের ব্যাকলগ চলছে৷”

আসলে মহালয়ার আগে থেকেই বজবজে আইওসির বটলিং প্ল্যান্টে উৎপাদনে সমস্যা তৈরি হয়েছিল৷ শ্রমিক বিক্ষোভ, রাজনৈতিক অস্থিরতার জেরে একসময় প্রায় বন্ধ হয়ে যায় লোডিং আনলোডিং৷ ঠিকাদারদের অধীন শ্রমিকরা তাঁদের মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে আন্দোলনে নামেন৷ কিন্তু ঠিকাদাররা সেই দাবি মানতে নারাজ৷ দুই পক্ষই নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকায় সঙ্কট চরমে ওঠে৷ উদ্ভূত সমস্যা সামাল দিতে নামে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন৷ পর পর দু’বার জেলাশাসক পি বি সেলিম মধ্যস্থতা করে কাজ শুরু করালেও ফের রবিবার থেকে শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দেয়৷ ফলে আবার ট্রাকে সিলিন্ডার ওঠানো-নামানো বন্ধ হয়ে যায়৷ বটলিংয়ের কাজে বিশেষ বিঘ্ন না ঘটলেও শ্রমিক অসেন্তাষের নেতিবাচক প্রভাব সেক্ষেত্রেও পড়ে বলে খবর৷ জেলাশাসক পি বি সেলিম সোমবার রাতে বলেন, “পুজোর আগে থেকে সমস্যা চলছে৷ মাঝে ঠিক হয়ে গেলেও গতকাল থেকে আবার ঝামেলা শুরু হয়েছে বলে খবর পেয়েছি৷ দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে, যাতে পরিষেবা ব্যাহত না হয়৷”

ভারত গ্যাস ডিস্ট্রিবিউটর্স সংগঠনের কর্তা সুকোমল সেনও একই কথা বলেন৷ ডিলারদের দুই ধরনের ক্ষমতাসম্পন্ন গোডাউনে গ্যাস থাকে৷ ৮০০০ কেজি ও ১২ হাজার কেজি (অর্থাৎ ৫৬৪টি সিলিন্ডার এবং প্রায় ৮২৫টি সিলিন্ডার)৷ ফলে একদিন যদি জোগান কম হয় তো নাভিশ্বাস ওঠে৷

সংস্থা সূত্রে খবর, একটি ট্রাকে থাকে ৩০৬টি সিলিন্ডার৷ পুজোয় নো-এন্ট্রি, লরির কম জোগান, কর্মীদের ছুটি-সহ নানা ঝুট-ঝামেলা লেগেই থাকে৷ ফলে সরবরাহে ঘাটতি দেখা দেয়৷ এবার বজবজ প্ল্যান্টের এই সমস্যা তাতে যেন বাড়তি বোঝা চাপাল৷ ইন্ডেন গ্যাস ডিস্ট্রিবিউটর্স সংগঠনের কর্তা বিজন বিশ্বাস স্বীকার করেন, “মানুষের অসুবিধা হচ্ছে৷ জানি, কোথাও কোথাও একমাসের উপর সময় কেটেছে কিন্তু গ্যাস মেলেনি৷ আসলে বজবজে ঝামেলা এর কারণ৷ আশা করছি প্রশাসনিক হস্তক্ষেপে সঙ্কট মিটবে৷” এখন সবাই তাই তাকিয়ে কত দ্রুত জট কাটে সে দিকেই৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে