২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কলেজে জেনারেটর ব্যবহারে ঝামেলা, অভিযোগ টিএমসিপির বিরুদ্ধে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: November 27, 2018 9:51 pm|    Updated: November 27, 2018 9:51 pm

Problem in Raj College

শ্রীকান্ত পাত্র, ঘাটাল: নবীনবরণ অনুষ্ঠানে জেনারেটর ব্যবহার নিয়ে কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে বিবাদে জড়াল দাসপুরের নাড়াজোল রাজ কলেজের তৃণমূল প্রভাবিত ছাত্র সংসদ৷ মঙ্গলবার বিবাদের জেরে কলেজের অধ্যক্ষকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের বিরুদ্ধে৷ খবর পেয়ে দাসপুর থানার পুলিশ গিয়ে অধ্যক্ষ অনুপম পোড়াকে উদ্ধার করে৷

মাত্র মাসখানেক আগে অনুপমবাবু কলেজে অধ্যক্ষ হিসাবে যোগদান করেছেন৷ ফলে ভীষণই ভেঙে পড়েছেন তিনি। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, “কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠানে জেনারেটর ব্যবহার নিয়ে সকালে কিছু ছাত্র আমার কাছে এসেছিল৷ আমি তাঁদের বিকেল তিনটে নাগাদ আসতে বলেছিলাম৷ কিন্তু পরে জানতে পারি কলেজের কয়েকজন অস্থায়ী কর্মচারীর মদতে ছাত্ররা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছে৷ রসায়ন বিভাগের একজন কর্মীকে মারধর করা হয়৷ যা মোটেই মেনে নেওয়া যায় না৷ বিক্ষোভের জেরে আমি কলেজ থেকে বেরিয়ে আসতে পারছিলাম না৷ পুলিশের সাহায্যে আমি কলেজ থেকে বেরিয়ে আসি৷”  

টিএমসিপির হুজ্জুতিতে বন্ধ কলেজের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান, রাস্তায় বসে বিক্ষোভ অধ্যাপকদের ]

কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী ২৯-৩০ নভেম্বর নবীনবরণ অনুষ্ঠান ছিল৷ সেই অনুষ্ঠানে টাকা পয়সা নিয়ে কথা বলতে একদল তৃণমূল ছাত্রপরিষদ নেতা অধ্যক্ষের কাছে গিয়েছিলেন৷ অধ্যক্ষ অনুপম পোড়া রাজিও হয়ে গিয়েছেন৷ কিন্তু সমস্যা বাধে জেনারেটর ব্যবহার নিয়ে৷ কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেতা রাজকুমার খান বলেন, “জেনারেটর ব্যবহার নিয়ে স্যার আমাদের সঙ্গে ভাল ব্যবহার করেননি৷ তাই আমরা স্যারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করি৷ আমরা মিছিলও করি৷ কিন্তু স্যারকে ঘিরে কোনও বিক্ষোভ দেখানো হয়নি৷” অবশ্য কলেজের রসায়ন বিভাগের কর্মী জয়নারায়ণ মণ্ডলকে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি। বলেন, “এরকম কোনও ঘটনা ঘটেনি৷”

জানা যায়, রসায়ন বিভাগে জয়নারায়ণবাবুকে দেখতে গেলে অনুপমবাবুকে বিক্ষোভ দেখানো হয় বলে অভিযোগ৷ এমনকী অশ্রাব্য ভাষায় তাঁকে কটূক্তি করাও হয় বলে জানা গিয়েছে৷ নাড়াজোলের তৃণমূল নেতা দাসপুর পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ কুমারেশ ভুঁইয়া বলেন, “যে কোনও বিষয়ে আন্দোলন করার অধিকার ছাত্রদের রয়েছে৷ এদিন অধ্যক্ষের কিছু সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ছাত্ররা৷ কিন্তু স্যারকে ঘেরাও বা ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয়নি৷”   

অসম্পূর্ণ অধিকাংশ শৌচালয়, বিপাকে মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের ‘নির্মল বাংলা’ প্রকল্প ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে