৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রঘুনাথপুরে পরকীয়ার বলি স্কুল শিক্ষক? স্ত্রীকে জেরা পুলিশের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 24, 2018 2:39 pm|    Updated: November 24, 2018 2:39 pm

Purulia teacher murder, affair suspected

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: রঘুনাথপুরে প্রাথমিক শিক্ষক খুনে নয়া মোড়৷ খুনের পিছনে ‘পরকীয়া’র আশঙ্কা স্থানীয় বাসিন্দাদের৷ স্বামীকে ফোন করে বাড়িতে ডেকে প্রেমিককে দিয়ে খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিক তদন্তে অনুমান পুলিশের৷ শনিবার, মৃত শিক্ষকের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তে নেমেছেন রঘুনাথপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক৷ খুনের কারণ জানতে মৃত শিক্ষকের স্ত্রীকেও জেরা শুরু করেছে পুলিশ৷

[হেরিটেজ রাজবাড়ি দখল করে নিচ্ছে জমি মাফিয়ারা, তদন্তে জেলা প্রশাসন]

শুক্রবার রাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায় পুরুলিয়ার রঘুনাথপুরে৷ জানা গিয়েছে, রঘুনাথপুর থানার বারিকবাঁধ এলাকার বাসিন্দা তথা রঘুনাথপুরের ঝান্ডাপাড়া সুরকুলি প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক চিন্ময় মণ্ডল শুক্রবার রাতে স্ত্রীর ফোন পেয়ে রঘুনাথপুর স্টেডিয়াম থেকে বাড়ি ফিরছিলেন৷ অভিযোগ, বাড়ি ফেরার পথে ওই শিক্ষকের পথ আটকে খুব কাছ থেকে গুলি চালানো হয়৷ গুলি লাগে বাঁদিকের চোখে৷ তাঁকে লক্ষ্য করে একাধিক গুলি চালানো হয়৷ গুলির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন চিন্ময়৷ মাথায় গুরুতর আঘাতও লাগে৷ পরে, ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর৷ খবর দেওয়া হয় রঘুনাথপুর থানার পুলিশকে৷ খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ৷ পরে মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয় রঘুনাথপুরের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখান থেকে ময়নাতদন্তের জন্য পুরুলিয়ার দেবেন মাহাতো সদর হাসপাতালে পাঠানো হয় চিন্ময়ের দেহ৷

[খুনের হুমকি দিচ্ছেন থানার আইসি! অভিযোগে সরব মহকুমা শাসক]

কিন্তু, কী কারণে এই খুন? স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রঘুনাথপুর মহকুমা ক্রীড়াঙ্গনে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে স্টেডিয়ামে যান ওই চিন্ময়৷ সেখানে শিক্ষকদের একটি খাওয়া-দাওয়ার অনুষ্ঠানও ছিল৷ অনুষ্ঠান চলাকালীন শুক্রবার রাতে শিক্ষককে ফোন করেন তাঁর স্ত্রী পাপিয়া৷ গত এপ্রিলে বিয়ে হয় চিন্ময় ও পাপিয়ার৷ এদিন রাতে স্ত্রীর ফোন পেয়ে বাড়িতে রওনা হন তিনি৷ অভিযোগ, বাড়ির অদূরেই চিন্ময়ের পথ আটকে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়৷ শরীরে একাধিক গুলির আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর৷

[জুতো হারানোকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র উলুবেড়িয়া, প্রাণ গেল এক ব্যক্তির]

স্থানীয়দের অনুমান, এদিন রাতে স্বামীকে ফোন করে বাড়িতে ডেকে এনে প্রেমিককে দিয়ে খুন করানো হয়ে থাকতে পারে৷ খুনের পিছনে পরকীয়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দিতে পারছেন না পুলিশ আধিকারিকরা৷ এদিনের এই ঘটনায় পর মৃত শিক্ষকের বাবা দীপক মণ্ডল রঘুনাথপুর থানায় খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ থানায় অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ তদন্তের স্বার্থে স্ত্রী পাপিয়াকে জেরা শুরু করেছে পুলিশ৷ তবে, খুনের কারণ নিয়ে এখনও কিছু বলতে নারাজ পুলিশ৷ খুনের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছেন রঘুনাথপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সত্যব্রত চক্রবর্তী৷

ছবি: সুনীতা সিং৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে