BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বৃষ্টির শঙ্কায় শপথ হবে আচ্ছাদনের নিচে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 26, 2016 11:20 am|    Updated: May 26, 2016 11:20 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: শহরজুড়ে হঠাত্‍ বৃষ্টি৷ বুধবার রেড রোডে কাজ চলছিল পুরোদমে৷ দুপুরে কিছুক্ষণ থেমে যেতে হল কর্মীদের৷ শুক্রবার এই পরিস্থিতি এড়াতে সচেষ্ট হল প্রশাসন৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শপথমঞ্চের তিনদিক ঢাকা থাকবে আগেই ঠিক ছিল৷ এদিন মঞ্চের উপরেও ভারী আচ্ছাদন চাপানো হয়েছে৷ অতিথি ও অন্য মন্ত্রীদের মঞ্চের উপরেও ঢাকা থাকবে৷ প্রবেশপত্রের জন্য প্রায় হাহাকার দেখা দিয়েছে৷ তবে মূল মঞ্চের সামনে অতিথি ও সাধারণ মানুষের বসার জায়গা থাকছে৷ ধর্মতলা সংলগ্ন এলাকায় থাকছে বেশ কয়েকটি জায়ান্ট স্ক্রিন৷ এদিন রাতেই চেয়ার পাতার কাজ শুরু হয়েছে৷ মঞ্চের চারিদিকে থাকছে সিসি টিভি ক্যামেরা৷
পুলিশ কমিশনার ছাড়াও অনুষ্ঠানের দেখভাল করবেন কলকাতা পুলিশের ১৪ জন ডিসি৷ থাকছে চারটি ওয়াচ টাওয়ার৷ নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন হবে এক হাজার অতিরিক্ত পুলিশ৷ সভামঞ্চের পিছনে থাকবে তিনটি কুইক রেসপন্স টিম৷ থাকবে বিপর্যয় মোকাবিলা দল৷ মোট আসন কুড়ি হাজার৷ এর মধ্যে ১৬ হাজার আসনে বসবেন সাধারণ মানুষ৷ চেয়ার ছাড়াও দূরে দাঁড়িয়ে অনুষ্ঠান দেখার সুযোগ থাকছে৷ মমতার দ্বিতীয়বার শপথ অনুষ্ঠান উপলক্ষে দেশ-বিদেশের ভিআইপিরা আসতে শুরু করেছেন৷ শহরের তারকা হোটেলগুলিতে তাঁদের রাখার ব্যবস্থা হয়েছে৷
এদিন সন্ধ্যায় গিয়ে দেখা গেল বৃষ্টিতে রাস্তা ধুয়ে সাফ৷ ঝকঝকে৷ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শেষ মুহূর্তের কাজ চলছে৷ রাস্তা থেকে প্রথমে সামান্য উঁচু প্ল্যাটফর্ম৷ তারপর এগিয়ে সিঁড়ি ধরে উঠতে হবে মঞ্চে৷ শহরের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ও গরমে অতিথিদের কথা ভেবে মঞ্চে বাতানুকূল যন্ত্র বসানো হচ্ছে৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও কংগ্রেসের দিল্লির নেতারা মমতার সঙ্গে মূল মঞ্চেই বসবেন৷ রাজ্যজুড়ে শপথ দেখার জন্য তীব্র কৌতূহল দেখা দিয়েছে৷ বিভিন্ন জেলা থেকে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা শুক্রবার সকালে কলকাতায় আসতে পারেন৷ অনুষ্ঠান শুরু হবে ১২.৪৫ মিনিটে৷ টিভিতে সম্প্রচারের জন্য সরকারের তরফে ‘ফিড’ দেওয়া হবে৷ সাংবাদিক ও চিত্র সাংবাদিকদের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা বরাদ্দ করা হয়েছে৷
রেড রোড ইতিমধ্যেই ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ৷ কোনও অবাঞ্ছিত ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য সতর্ক পুলিশ৷ সবসময় নজরদারি চলছে৷ কংগ্রেস আগেই জানিয়েছে তারা অনুষ্ঠানে থাকবে না৷ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি শপথ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিয়েছেন৷ সিপিএম বা বামফ্রন্ট বয়কটের কথা ঘোষণা করেনি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement