BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাগদেবীর আরাধনায় জল ঢালতে পারে পশ্চিমি ঝঞ্ঝা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: February 7, 2019 10:42 am|    Updated: February 7, 2019 10:42 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: মেঘ-বৃষ্টির আবহে কেটেছে দুর্গাপুজোর প্রথম দিকটা। এবার বাগদেবীর আরাধনাতেও আশঙ্কার কালো মেঘ! সৌজন্যে সেই পশ্চিমি ঝঞ্ঝা। যার প্রভাবে সরস্বতী পুজোর ঠিক মুখে বৃষ্টিতে গোটা পশ্চিমবঙ্গ ভিজতে পারে বলে আশঙ্কা আবহাওয়াবিদদের।

আলিপুর আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে, সপ্তাহান্তে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি। কলকাতা-সহ রাঢ়বঙ্গেও হালকা বৃষ্টি হতে পারে। সিকিম, দার্জিলিংয়ের উঁচু পাহাড়ে নতুন করে বরফ পড়তে পারে। তিথি অনুয়াযী, আগামী শনি ও রবিবার সরস্বতী পুজো। কচিকাঁচা তো বটেই, হাওয়া অফিসের এহেন পূর্বাভাসে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরণীদের মুখে দুশ্চিন্তার মেঘ ঘনিয়েছে। সরস্বতী পুজো তথা বাঙালির ভ্যালেনটাইন্স ডে’র রঙিন আমেজ মাটি করতে অসময়ে প্রকৃতির এ আবার কী কারিকুরি? আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এ সময়ে এটা খুব একটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। এই সময় পশ্চিমি ঝঞ্ঝার হানা স্বাভাবিক ঘটনা। বস্তুত, এ বছর জানুয়ারিতে পরের পর ঝঞ্ঝা হাজির হয়েছে হিমালয়ে। পাহাড়ে বরফও পড়েছে দেদার। আবার হাজির হচ্ছে পশ্চিমি ঝঞ্ঝা।

ছাত্র থাকলেও শিক্ষক নেই বহু স্কুলে, ভোটের মুখে বদলি প্রায় ৫০০ প্রাইমারি টিচার ]

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, বৃহস্পতিবার নাগাদ ঝঞ্ঝাটি এগোবে পূর্ব ভারতের দিকে। ওড়িশায় তৈরি হওয়া একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তের ফলে ঝঞ্ঝাটি পূর্ব ভারতে এসেও বিশেষ শক্তি হারাবে না। যার ফলে বৃষ্টির পরিস্থিতি তৈরি হবে। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তরের উপ মহানির্দেশক সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার জানিয়েছেন, শুক্রবার এবং শনিবার উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় বৃষ্টি হতে পারে। শনিবার কলকাতা এবং পশ্চিমের জেলাগুলিতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও বৃষ্টির সম্ভাবনা মহানগরের চেয়ে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে বেশি। মৌসম ভবন জানাচ্ছে, নতুন পশ্চিমি ঝঞ্ঝাটি খুবই শক্তিশালী। সাধারণত, এই ধরনের ঝঞ্ঝার প্রভাবে রাজস্থান-হরিয়ানা লাগোয়া সমতলের উপর একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়। এবার ঝঞ্ঝা এতটাই শক্তিশালী যে, নিম্নচাপ পর্যন্ত তৈরি হতে পারে।এমনিতে ভূমধ্যসাগর থেকে জলীয় বাষ্প নিয়ে ইরান, আফগানিস্তান, পাকিস্তান হয়ে কাশ্মীরে ঢোকে। এ বার নিম্নচাপ ও ঝঞ্ঝার সম্মিলিত প্রভাবে বিপুল পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকবে আরব সাগর থেকেও। ফলে ব্যাহত হবে পশ্চিমি শুকনো বাতাসের আনাগোনা।

আজ বৃহস্পতিবার থেকে কলকাতা-সহ পূর্ব ভারতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করবে। কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭-১৮ ডিগ্রি ছুঁয়ে ফেলতে পারে। ফলে আরও কমে যাবে ঠান্ডার আমেজ। সপ্তাহের শেষের দিকে কলকাতার রাতের তাপমাত্রা ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে পৌঁছতে পারে। বুধবার যা ছিল ১৫.১ ডিগ্রি। তবে ঝঞ্ঝা সরে গেলে রবিবারের পর আবার তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রির আশপাশে নেমে আসতে পারে। তবে কলকাতার ক্ষেত্রে শীত মোটামুটি বিদায় নিয়েছে বলেই জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা।

মাত্র ছ’মিনিট ভাষণ দিয়েই পালিয়েছেন, ঠাকুরনগরে মোদিকে কটাক্ষ জ্যোতিপ্রিয়র ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement