BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘মন্ত্রী গৌতম দেব ও রবীন্দ্রনাথ ঘোষ গরু পাচারের সঙ্গে যুক্ত’, বিস্ফোরক রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 3, 2020 8:42 pm|    Updated: October 3, 2020 9:28 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: গরু পাচারের টাকার ভাগ নিচ্ছেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব ও উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। শিলিগুড়িতে এসে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় (Raju Banerjee)। শনিবার শিলিগুড়িতে কৃষি আইনের পক্ষে বিজেপির মিছিলে হাজির ছিলেন তিনি। সেখানেই এই অভিযোগ করেন রাজু। মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ (Rabindranath Ghosh) পালটা রাজুকেই ‘গরু চোর’ বলে আক্রমণ করেন। অন্যদিকে দার্জিলিং জেলা তৃণমূলের তরফে শিলিগুড়িতে রাজুবাবুর বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করা হবে বলে জানালেন তৃণমূল জেলা সভাপতি রঞ্জন সরকার। সুপ্রিম কোর্টেও যাওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বিজেপি নেতার অভিযোগ, ‘সামনেই ফাঁসিদেওয়ায় বাংলাদেশ সীমান্ত। সেখান দিয়ে যে গরু পাচার হচ্ছে তার টাকা নিচ্ছেন মন্ত্রী গৌতম দেব ও রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।” তার এই বক্তব্য শুনে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, “গরুচোরের মন্তব্যের কোনও জবাব দিতে চাই না।” তৃণমূলের দার্জিলিং জেলা সভাপতি রঞ্জন সরকার বলেন, “প্রমাণিত সত্য যে গরুপাচারের সঙ্গে কিছু বিএসএফ আধিকারিক, শুল্ক দপ্তরের বেশ কয়েকজন যুক্ত। কোনও প্রমাণ ছাড়া দু’জন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে কীভাবে এমন ভিত্তিহীন অভিযোগ করতে পারেন। আমরা এর বিরুদ্ধে এফআইআর করব ও সুপ্রিম কোর্টেও যাব।”

[আরও পড়ুন: রাজ্যে একদিনে রেকর্ড সংক্রমণ, উদ্বেগ বাড়াচ্ছে উঃ ২৪ পরগনার করোনায় মৃতের সংখ্যা]

এদিন কৃষি আইনের সমর্থনে শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্ক থেকে মাল্লাগুড়ি পর্যন্ত মিছিল করে বিজেপি। এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়, শ্রীরূপা মিত্র, শিলিগুড়ি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি প্রবীণ আগরওয়াল, শিলিগুড়ি সাংগঠনিক জেলা যুব সভাপতি কাঞ্চন দেবনাথ-সহ জেলা একাধিক নেতানেত্রী। মিছিল শুরুর আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “মানুষকে কৃষি আইনের নামে ভুল বোঝাচ্ছে বিরোধীরা। কাটমানি বন্ধ হয়ে যাবে সে কারণেই বিরোধিতা করছে তৃণমূল।” 

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: ভাতারের ওসি মিথ্যা গাঁজার কেস দেন! মানবাধিকার সংগঠনের নেত্রীর ফেসবুক পোস্টে বিতর্ক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement