১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

করোনাকালে মদ বিক্রিতে নয়া রেকর্ড! বিপুল অর্থ রাজ্যের কোষাগারে

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: January 22, 2022 9:51 pm|    Updated: January 22, 2022 9:52 pm

Record wine sales in pandemic time Huge amount of money in the state treasury | Sangbad Pratidin

মলয় কুণ্ডু: মদ বিক্রিতে করোনা (Covid) পূর্ব সময়কে ছাপিয়ে গেল করোনাকাল। গত ১৮ মাসে মদ বিক্রিতে নয়া রেকর্ড গড়ে ফেলল রাজ্য। করোনাকালে মদ বিক্রি করে রাজ্যের কোষাগারে এল বিপুল পরিমাণ অর্থ। আবগারি দপ্তর (State Excise Department) সূত্রে খবর, শতাংশের হিসেবে বিক্রি সবচেয়ে বেশি দেশি মদের। বিক্রি বেড়েছে বিদেশি মদেরও। 

আবগারি দপ্তর সূত্রে খবর, ২০২০ সালের জুন মাস থেকে এখনও পর্যন্ত করোনাকালে রাজ্যের মদ বিক্রি থেকে আয় হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে ২০২০-২১ সালে সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকার মতো আয় হয়েছিল। ২০২১-২২ আর্থিক বছরে নয় মাসে আয় ১০ হাজার কোটি টাকা পার করে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আবগারি দপ্তরের অনুমান, গত আর্থিক বছরের তুলনায় আরও দেড় থেকে দুই হাজার কোটি টাকা বেশি আয় হতে পারে এই বছরে।

[আরও পড়ুন: পুজোয় সুরাপ্রেমীদের নজির! উৎসবের দিনে মদ বিক্রিতে রেকর্ড আয় রাজ্যের]

২০১৭-১৮ এবং ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরকে ছাপিয়ে গিয়েছে করোনাকালে ১৮ মাসের মদ বিক্রির থেকে প্রাপ্ত অর্থের পরিমাণ। ২০২১ সালে সব থেকে বেশি মদ বিক্রি করেছে আবগারি দপ্তর। তার মধ্যে দেশি মদ বিক্রি করে আয়ের পরিমাণ বিপুল। বিক্রি হওয়া মদের ৩৫ শতাংশই দেশি মদ। একই সঙ্গে বেড়েছে বিয়ার এবং বিদেশি মদের বিক্রিও।

উল্লেখ্য, মহামারীর প্রথম পর্বে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল মদ বিক্রি। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন, মদ্যপানে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। লকডাউনে বন্ধ করে দেওয়া হয় মদের দোকানও। পরে মদ বিক্রি শুরু হলে প্রথমে ৩০ শতাংশ বিক্রয় কর বসিয়েছিল রাজ্য। তবে ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর থেকে রাজ্যে বিলিতি মদের দাম খানিকটা কমেছে। 

[আরও পড়ুন: রাত পর্যন্ত বার খুলে রাখার ‘শাস্তি’, দু’মাস মদ বিক্রি করতে পারবে না কলকাতার ২ অভিজাত হোটেল

মনে করা হচ্ছে, করোনাকালে অনলাইনে মদ বিক্রি থেকে মদের দাম,  অন্যান্য পড়শি রাজ্যের প্রায় সমান বা কম করার মতো পদক্ষেপ নেওয়ায় ফল মিলেছে। দেশি মদের ক্ষেত্রে যেমন বিভিন্ন নতুন মদ নিয়ে আসা হয়েছে, তেমনই নকল মদের দাপট কমেছে। দপ্তরের ঘরে টাকাও আসছে বিধিবদ্ধ পথে। সব মিলিয়ে সুফল পাচ্ছে রাজ্য।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে