BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সহানুভূতি পেতে আগুন লাগাচ্ছে তৃণমূল’, বিস্ফোরক অভিযোগ সায়ন্তন বসুর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: January 14, 2021 5:50 pm|    Updated: January 14, 2021 6:32 pm

An Images

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: বাগবাজার (Bagbazar ) অগ্নিকাণ্ড নিয়ে গতকাল থেকেই শাসকদলকে নিশানা করছে গেরুয়া শিবির। এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। বললেন, “সহানুভূতি পেতে বিভিন্ন জায়গায় আগুন লাগাচ্ছে তৃণমূল।”

বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ির মোহিতনগরে যান সায়ন্তন বসু (Sayantan Basu)। সেখানে শষ্য সংগ্রহের পর যোগ দেন ‘আর নয় অন্যায়’ কর্মসূচিতে। এরপরই একাধিক ইস্যুতে তুলোধনা করেন শাসকদলকে। বাগবাজারের অগ্নিকাণ্ডের পিছনে ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। বলেন, “কলকাতায় পর পর যে ক’টি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে সবক’টির নেপথ্যে রয়েছে তৃণমূল। ইচ্ছে করে দমকলকে দেরিতে পাঠানো হচ্ছে। ফলে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। এসবের পর মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে নিজেদের মসিহা প্রমাণের চেষ্টা করছে রাজ্য।” এদিন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুকে ‘সাইরেন মিনিস্টার’ বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: মাছ ধরতে গিয়ে দুষ্কৃতীদের নিশানায় তৃণমূল নেতা, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ভরতি হাসপাতালে]

প্রসঙ্গত, বুধবার সন্ধে পৌনে সাতটা নাগাদ বাগবাজার বস্‌তিতে আগুন (Fire) লাগে। স্থানীয়রাই চেষ্টা করেছিলেন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার। একের পর এক গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, বস্‌তির ছাউনি, অতিদাহ্য ত্রিপল ও কাঠের কারণে হু হু করে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। লেলিহান শিখা গ্রাস করে গোটা বস্‌তি। দমকলের ২৭ টি ইঞ্জিনের দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও ঘরছাড়া হয়েছে বহু পরিবার। রাতেই ঘটনাস্থলে যান ফিরহাদ হাকিম, শশী পাঁজা-সহ একাধিক মন্ত্রী। বৃহস্পতিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী। আর এই গোটা ঘটনার পিছনে রাজনীতি রয়েছে বলেই দাবি বিজেপি নেতাদের। বুধবার রাতেই ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের নেপথ্যে ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে দাবি করেছিলেন বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। বৃহস্পতিবার ঘটনার তদন্তের দাবি জানিয়ে রাজ্য বিজেপির সভাপতি বলেন, “এর পিছনে ষড়ষন্ত্র রয়েছে বলেই আমার মনে হয়। তদন্ত প্রয়োজন। সত্য সবার জানা উচিত। “

[আরও পড়ুন:কয়লা কাণ্ডে আরও কঠোর সিবিআই, মূল অভিযুক্ত লালার সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নোটিস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement