BREAKING NEWS

৬ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মহিলা কলেজে ‘চুলোচুলি’, এসএফআই-টিএমসিপির সংঘর্ষে আহত বেশ কয়েকজন ছাত্রী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 11, 2019 6:18 pm|    Updated: January 11, 2019 6:18 pm

SFI-TMCP clash in Siliguri College

শুভদীপ রায় নন্দী, শিলিগুড়ি: বাহুবলীদের চুলোচুলি। শিলিগুড়ি মহিলা কলেজে দুই সংগঠনের সংঘর্ষের ছবি দেখে এটা মনে হওয়ারই স্বাভাবিক। এসএফআই এবং টিএমসিপি সদস্যদের মধ্যে বচসা, হাতাহাতি এত দূর গড়াল, কলেজে সাম্প্রতিককালের মধ্যে কেউ এমন দৃশ্য দেখেছেন বলে মনে করতে পারেন না। কাউকে মাটিতে ফেলে মার, তো কেউ রীতিমতো কুস্তির ভঙ্গিতে একে অন্যকে আক্রমণ করছেন, কেউ ছিঁড়ে দিলেন অন্যের চুল। আহত দু পক্ষেরই বেশ কয়েকজন। দিদিদের চুলোচুলির জেরে কলেজের পড়াশোনা শিকেয়।

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার বিকেলে। আগামী উনিশে জানুয়ারি তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশে পডুয়াদের শামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মিছিল বের করা হয় দার্জিলিং জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের তরফে। অংশ নেয় শিলিগুড়ি মহিলা কলেজের টিএমসিপি সদস্যরাও। মিছিলের পর এসএফআই অভিযোগ করে, জোর করে কলেজের পড়ুয়াদের মিছিল শামিল করা হয়েছে। ভয় দেখানো হয়েছে বলেও অভিযোগ। অভিযোগ অস্বীকার করে টিএমসিপি নেতৃত্ব। ওই দিনের মতো বাকযুদ্ধে বিষয়টি মিটে গেলেও, বৃহস্পতিবার একই ইস্যুতে শুরু হয় ধুন্ধুমার। দিনের শুরুতে কলেজের অধ্যক্ষের কাছে গিয়ে স্মারকলিপি জমা দেন টিএমসিপি সদস্যরা। তাতে অভিযোগ, এসএফআই তাঁদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে। এর বিরোধিতা করে এসএফআই পাল্টা স্মারকলিপিতে জানায়, বহিরাগতদের নিয়ে বৃহস্পতিবারের মিছিল করেছে টিএমসিপি। তৈরি হয়েছে অশান্তির পরিবেশ। এরপর ফের টিএমসিপির তরফে আরও একটি স্মারকলিপি জমা দিয়ে অভিযোগ তোলা হয়, এসএফআই সদস্যরাই বহিরাগতদের কলেজে নিয়ে গিয়ে গন্ডগোল পাকাচ্ছে। শেষপর্যন্ত স্মারকলিপি আদানপ্রদানেই সীমাবদ্ধ রইল না এসএফআই-টিএমপিসির লড়াই। এরপর শুরু হয় দু পক্ষের ছাত্রীদের মধ্যে ধুন্ধুমার। রীতিমত হাতাহাতি, ঘুসি, চড় চলতেই থাকে। গুরুতর আহত হন তৃতীয় বর্ষের ইংরাজি অনার্সের ছাত্রী তথা টিএমসিপির সাধারণ সম্পাদক সুশ্বেতা কর চৌধুরি।

woman-chaos1

পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে ঘটনাস্থলে শিলিগুড়ি থানা থেকে পাঠানো হয় মহিলা পুলিশ বাহিনী। কোনওক্রমে অশান্তি নিয়ন্ত্রণে এলেও, কলেজ চত্বরে এমন অশান্তিতে ব্যাহত হয়েছে পঠনপাঠন। আতঙ্কিত ছাত্রীরা। কলেজে কলেজে পড়ুয়াদের মধ্যে সংঘর্ষ রুখতে বারবার বার্তা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী। শৃঙ্খলা বজায় রাখতে একাধিক নিয়মবিধি চালু হয়েছে। তা সত্ত্বেও পরিস্থিতির এমন কিছু উন্নতি হয়নি, এদিন শিলিগুড়ির ঘটনা থেকেই স্পষ্ট।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে