৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

কল্যান চন্দ, বহরমপুর: আসানসোলের পর মুর্শিদাবাদ। ফের শুটআউটের ঘটনা ঘটল রাজ্যে। বিশ্বকর্মা পুজোর দিন ভোররাতে গুলি করে খুন করা হল বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন চা বিক্রেতাকে। মৃতের নাম তরুণ হালদার। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের বহরমপুর থানার ভাকুড়ি এলাকায়। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: সমাজের বাঁকা দৃষ্টি এড়িয়ে রাজমিস্ত্রির কাজ, প্রশংসা কুড়োচ্ছেন পুরুলিয়ার ৭ মহিলা]

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে দোকান বন্ধ করার পর বাড়িতে ফোন করে ওই যুবক জানিয়েছিল, তিনি রাতে বাড়ি ফিরবেন না। তাঁর দোকানের পাশের একটি মোটর গ্যারেজেই থাকবেন। সেখানে পিকনিক রয়েছে। এরপর রাত তিনটে নাগাদ আচমকাই গ্যারেজের মালিক তরুণের বাড়িতে গিয়ে হাজির হন। তিনি জানান, খাওয়া দাওয়া সেরে যখন তরুণ নিজের দোকানে গিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন, সেই সময় বাইকে করে দু’জন এসে তাঁর মাথায় গুলি করে পালায়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান পরিবারের লোকেরা। এরপর আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এরপর খবর দেওয়া হয় বহরমপুর থানায়। ইতিমধ্যেই দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তরুণের দাদা জয় জানিয়েছেন, তাঁর ভাই কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মী ছিলেন না। কারও সঙ্গে কোনও গণ্ডগোলও ছিল না তাঁর। তাহলে কেন তাঁকে খুন করা হল, সেটাই তাঁরা বুঝতে পারছেন না। তবে মৃতের পরিবারের অভিযোগ, পরিকল্পনামাফিক তরুণকে গ্যারেজে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়েছে। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই পরিবারের তরফে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। আশেপাশের লোককে জিজ্ঞাসাবাদ করে আততায়ীদের খোঁজ করার চেষ্টা করছে পুলিশ। জেরা করা হচ্ছে গ্যারেজের মালিককে। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি বলেই সূত্রের খবর। ঘটনায় শোকের ছায়া এলাকায়।

[আরও পড়ুন: টাকার বিনিময়ে সবুজসাথীর সাইকেল বিলি! প্রশ্ন করতেই মারমুখী প্রধান শিক্ষক]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং