১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একশো দিনের প্রকল্পে আর্থিক তছরুপের অভিযোগ। কাটমানি ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে রাতে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বীরভূমের দুবরাজপুর। চলল বোমা ও গুলি। গুলিতে গুরুতর জখম মহিলা-সহ ৫ গ্রামবাসী।আহতেরা ভরতি সিউড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে। এদিকে এই ঘটনার পর গ্রামবাসীদের বকেয়া টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি।

[আরও পড়ুন: কোটি টাকা কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ, দলনেত্রীর হুঁশিয়ারির পর গ্রেপ্তার তৃণমূল নেতা]

জানা গিয়েছে, দুবরাজপুরে রসুলপুর গ্রামে অনেকেই একশো দিনের প্রকল্পে কাজ করেছেন। কিন্তু টাকা পাননি বলে অভিযোগ। গ্রামবাসীদের দাবি, সরকারি প্রকল্পের তাঁদের বকেয়া টাকা আত্মসাৎ করেছেন তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতের প্রধান ও সদস্য। বুধবার রাতে যখন পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়িতে টাকা চাইতে যান, তখন গ্রামবাসীদের লক্ষ্য করে ছররা গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ। চলে বোমাবাজিও। গুলিতে গুরুতর জখম হন এক মহিলা-সহ ৫ জন গ্রামবাসী। আহতদের ভরতি করা হয়েছে সিউড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে। এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে রসুলপুর গ্রামে যান বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি। অবিলম্বে একশো দিনের প্রকল্পে বকেয়া গ্রামবাসীদের ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার কলকাতার নজরুল মঞ্চে দলের কাউন্সিলরদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে তোলাবাজি রুখতে কড়া বার্তা দেন তিনি। এমনকী সরকারি প্রকল্পের যদি তৃণমূল কংগ্রেসের কেউ কাটমানি নিয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে টাকা ফেরতের নির্দেশ দেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বস্তুত, নির্মল বাংলার প্রকল্পে কোটি টাকা কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে মালদহে এক তৃণমূল নেতা ও প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: রোগীমৃত্যুতে ফের সরকারি হাসপাতালে হামলা, নিগ্রহ সুপারকেও

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং