১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মাটির গন্ধে, লোকসংস্কৃতির আবহে গড়পঞ্চকোটে অন্য বর্ষবরণ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 24, 2016 6:38 pm|    Updated: December 24, 2016 6:38 pm

Special four day tour package in Purulia for this New Year

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: হেভি মেটাল মিউজিক, ডিজে, ব়্যাম্প ওয়াক বা অকারণ ডেসিবেলের বাড়াবাড়ি নয়৷ এ এক অন্য ছন্দে বর্ষবিদায়৷ বর্ষবরণ৷ মাদলের দ্রিমি দ্রিমি বোল, ছৌ, নাটুয়া, বাউলশিল্পীদের সুরমূর্ছনা৷ মাটির গন্ধে, লোকসংস্কৃতির আবহে ২০১৬ পেরিয়ে ২০১৭-এ পা৷ শীতের মরশুমে পাহাড়-জঙ্গল ঘেরা পুরুলিয়ায় বর্ষশেষে পর্যটক টানতে এভাবেই প্যাকেজ সাজিয়েছে গড়পঞ্চকোট ইকো টুরিজম সংস্থা৷ ছৌ, নাটুয়া, বাউল, পাতা নাচ, কবিগান নিয়ে তিন রাত্রি, চারদিনের প্যাকেজে প্রায় গোটা পুরুলিয়াকেই তুলে ধরছে ওই পর্যটন সংস্থা৷

24-baro-diner-agei-seje-utche-gar-panchakot-eco-tourism
ছবি- অমিত সিংদেও

শুধু তাই নয়, জঙ্গলমহল পুরুলিয়া লাগোয়া বাঁকুড়া, বর্ধমান এমনকী ঝাড়খণ্ডের সাইট সিয়িংগুলিও বর্ষশেষের প্যাকেজে থাকছে৷ সঙ্গে ব্রেকফাস্ট, ইভনিং স্ন্যাক্স, ডিনারও থাকছে৷ সাইট সিনে থাকছে ইতিহাস আর প্রকৃতিতে মিশে থাকা গড়পঞ্চকোট সাম্রাজ্যের ধ্বংসাবশেষ, ‘জোর-বাংলা’ স্থাপত্যের দেউল, পাঞ্চেৎ জলাধার, ডিভিসি পার্ক, বড়ন্তি, জয়চণ্ডী পাহাড়৷

এছাড়া এই প্যাকেজে সারাদিন অযোধ্যা পাহাড়ে রেখে বামনি ফলস, টুরগা ফলস, আপার ড্যাম, লোয়ার ড্যাম, মুখোশগ্রাম চড়িদা, খয়রাবেড়া জলাধার, পাখি পাহাড় ঘোরানোর ব্যবস্থা আছে৷ সঙ্গে বাঁকুড়ার বিহারীনাথ পাহাড়৷ তাছাড়া মাইথন ড্যাম, কল্যাণেশ্বরী মন্দির ও ঝাড়খণ্ডের ধানবাদের স্নেক পার্কও রাখা হয়েছে এই বর্ষশেষের প্যাকেজে৷ সব মিলিয়ে বর্ষবরণে ডাকছে ছৌ-নাটুয়ার দেশ পুরুলিয়া৷ পুরুলিয়ার জেলাশাসক তন্ময় চক্রবর্তী জানান, “আশা করছি বর্ষশেষে পুরুলিয়ার সব পর্যটনকেন্দ্রই হাউসফুল থাকবে৷”

baranti_garpanchkot

রাজ্যে পালাবদলের পরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার পর্যটনকে তুলে ধরতে জঙ্গলমহলের তিন জেলা পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরকে অগ্রাধিকারে রাখেন৷ তাই শুধু নতুন পর্যটক আবাস গড়া, সরকারি অতিথি নিবাসগুলিকে শুধু সাজানো গোছানো নয়, বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে উদ্যোগী রাজ্য৷ সেই জন্য রাস্তাঘাটের মানোন্নয়ন, সাইট সিয়িংগুলিকে আরও সুন্দরভাবে সাজাতে পুরুলিয়ার মতো প্রান্তিক জেলাতেও পর্যটন শিল্পে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়ছে৷ পিপিপি মডেল সরকারি পর্যটন পরিকাঠামো ‘এক্সপ্রেশন অফ ইণ্টারেস্ট’-এর মাধ্যমে সরকারি সংস্থাকে লিজও দিচ্ছে প্রশাসন৷ জঙ্গলমহল বিশেষ করে পুরুলিয়া তো এখন পর্যটকদের অন্যতম ‘ডেস্টিনেশন’৷

গড়পঞ্চকোট ইকো টুরিজমের ম্যানেজার রমেশ মুখোপাধ্যায় বলেন, “সরকার বা প্রশাসন আমাদের ভীষণভাবে সাহায্য করছে বলেই আমরা এত দারুণভাবে জঙ্গলমহল তথা পুরুলিয়ার পর্যটনকে তুলে ধরতে পারছি৷ আমরা পরিবেশ বান্ধব পর্যটনকেই গুরুত্ব দিচ্ছি৷” অনলাইনে বুকিংয়ের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে৷ ধামসা-মাদলের দ্রিমি দ্রিমি শব্দে ছৌ-নাটুয়া, বাউল-কবিগানে এ এক অন্য উদযাপন৷

24-puruliar-chow
ছবি- অমিত সিংদেও

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement