Advertisement
Advertisement
Sukanta Majumdar

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হচ্ছেন সুকান্ত-শান্তনু, বিজেপি রাজ্য সভাপতি পদে দিলীপ?

তমলুক জিতেও শিকে ছিঁড়ল না অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কপালে।

Sukanta Majumder and Santanu Thakur likely to be central ministers, who will be state president of Bengal BJP

ফাইল ছবি।

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 9, 2024 2:12 pm
  • Updated:June 9, 2024 3:07 pm

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হতে চলেছেন বঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)! মোদির শপথের আগের মুহূর্তে এমনই জল্পনা তুঙ্গে রাজধানীর রাজনৈতিক মহলে। বিজেপিতে ‘এক ব্যক্তি, এক পদ’ নীতি অনুযায়ী সুকান্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হলে বিজেপি রাজ্য সভাপতির পদে থাকতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে এই পদে বসবেন কে? এনিয়ে ইতিমধ্য়েই আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে কি দিলীপ ঘোষকেই (Dilip Ghosh) পুরনো পদে ফেরানো হবে? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মরিয়া রাজনৈতিক মহল। 

রবিবার সন্ধ্যায় দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে তৃতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদি। তাঁর সঙ্গে শপথগ্রহণ আরও কয়েকজন ভাবী মন্ত্রীর। তার আগে শনিবারই বঙ্গ বিজেপির (West Bengal BJP) দুই নেতা সুকান্ত মজুমদার, শুভেন্দু অধিকারী পৌঁছে গিয়েছেন দিল্লিতে। দলের তরফে তাঁদের ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে খবর।  এই পরিস্থিতিতেই রবিবার রাজধানীর রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছড়িয়েছে, বালুরঘাটের (Balurghat) দুবারের সাংসদ তথা বঙ্গ বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব পেতে পারেন। প্রতিমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। আরেক জয়ী সাংসদ বনগাঁর শান্তনু ঠাকুরও হতে পারেন মন্ত্রী। তবে তমলুকের অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের ভাগ্যে এবার  মন্ত্রিত্বের শিকে ছিঁড়ছে না বলেই মনে করা হচ্ছে।  

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিদায় নাড্ডার! বিজেপির নতুন সভাপতি হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে কারা?

এমনিতে সুকান্ত মজুমদার বরাবর দিল্লির (Delhi) কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে যথেষ্ট কাছের। সেই কারণেই বঙ্গ বিজেপির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল তাঁকে। এবার দিল্লির মন্ত্রী পদে তাঁকে আনা খুব অস্বাভাবিক নয়। এদিকে, বাংলায় বিজেপির মধ্যে দিলীপ গোষ্ঠী এবং শুভেন্দু-সুকান্ত গোষ্ঠীর কথা সর্বজনবিদিত। দুই গোষ্ঠীর মধ্যে দ্বন্দ্বের চোরাস্রোত আছেই। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মত, দিলীপ ঘোষকে রাজ্য সভাপতির পদ থেকে সরানোর পর থেকেই বঙ্গে দলের পারফরম্যান্সের অবনমন ঘটেছে। তাই তাঁকে ফেরানোর দাবিও উঠেছিল। সুকান্তর মন্ত্রী হওয়ার জল্পনার পাশাপাশি উঠেছে অবধারিত প্রশ্ন, তাহলে রাজ্য সভাপতির পদে কাকে আনা হবে? 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘দিদিকে বলো’ ধাঁচে ‘সরাসরি সায়নী’, জিতেই এলাকাবাসীর জন্য হেল্পলাইন চালুর ভাবনা সাংসদের]

দিলীপ ঘোষ এবার লোকসভা ভোটে (Lok Sabha Election Result 2024) বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্র থেকে পরাজিত হয়েছেন। তিনি আপাতত সংঘের কাজই চালিয়ে যেতে চান।  কিন্তু সুকান্ত মজুমদার মন্ত্রী হলে দিলীপ ঘোষকে ফের রাজ্য সভাপতি পদে ফেরানো হতে পারে বলে তুঙ্গে জল্পনা। 

দেখুন ভিডিও: 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ