BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

তৃণমূলকে ধাক্কা দিতে এবার দার্জিলিং পুরসভায় অনাস্থা প্রস্তাব পেশ গুরুংপন্থীদের

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 29, 2019 5:43 pm|    Updated: May 29, 2019 5:43 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহ রায়, শিলিগুড়ি: আবারও পাহাড়ে সক্রিয় বিমল গুরুং৷ আবারও দার্জিলিংয়ে নিজের দাপট দেখাতে শুরু করেছেন বিমলপন্থীরা৷ ফের পাহাড়ে ধাক্কা খেতে চলেছে তৃণমূল৷ কারণ, এবার হয়তো শাসকঘনিষ্ঠ বিনয় তামাংপন্থীদের হাতছাড়া হতে চলেছে দার্জিলিং পুরসভা৷

[ আরও পড়ুন: রাজ্যপাট ছেড়ে রাজপথে, সংগঠন ধরে রাখতে ফের আন্দোলনে নামছেন মমতা]

জানা গিয়েছে, বুধবার বিনয়পন্থীদের বিরুদ্ধে একসঙ্গে দার্জিলিং পুরসভায় অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করতে যান ১৯ জন গুরুংপন্থী পুরপ্রতিনিধি। ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের পুরপ্রতিনিধি নবীন রাই এবং বর্তমানে পাহাড়ে গুরুংপন্থীদের মুখপাত্র বিপি বাজগায়েনের নেতৃত্বে পুরসভায় অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করতে যান তাঁরা৷ কিন্তু আগে থেকেই পুলিশ সেই খবর পেয়ে যাওয়ায়, পুরসভার গেটেই আটকে দেওয়া হয় বিক্ষুব্ধ পুরপ্রতিনিধিদের৷ সূত্রের খবর, পুলিশের সঙ্গে সাময়িক ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েন পুরপ্রতিনিধিরা৷ ওই বিক্ষোভের মধ্যে থেকেই গুরুংপন্থী বাজগায়েনকে আটক করে পুলিশ৷ এরপর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় দার্জিলিং সদর থানায়৷ সেখানে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে সূত্রের খবর৷ ফলে স্থগিত হয়ে যায় অনাস্থা জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া৷

পুলিশ জানিয়েছে, বাজগায়েনের বিরুদ্ধে ১৬টি মামলা রয়েছে৷ বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগ, সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে৷ যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বাজগায়েন৷ থানার অন্দর থেকেই কর্মীদের কর্মীদের উদ্দেশ্যে শান্তি বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি৷ গুরুংপন্থী জনপ্রতিনিধি নবীন রাই জানান, ‘‘বিমল গুরুংয়ের কাছ থেকে আমরা টিকিট পেয়েছিলাম৷ আমরা ওনারই সমর্থক৷ আমরা বিনয় তামাংকে নেতা হিসাবে মানি না৷ এই ক’জন নয়, আরও অনেক লোক রয়েছে আমাদের সঙ্গে৷ আমরাই বোর্ড দখল করব৷’’ সূত্রের খবর, ঘটনার সময় পুরসভায় উপস্থিত ছিলেন না, দার্জিলিং পুরসভার চেয়ারপার্সন বিনয়পন্থী প্রতিভা রাই৷

[ আরও পড়ুন: আর্থিক অভাবে জোটেনি বইখাতা, পাশ করতে না পেরে আত্মঘাতী উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী]

জানা গিয়েছে, দার্জিলিং পুরসভায় মোট আসন রয়েছে ৩২টি৷ গত নির্বাচনে এই পুরসভায় ৩১টি আসন পায় বিমল গুরুংয়ের গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা৷ একটি আসন পায় তৃণমূল৷ কিন্তু, এরপর পাহাড়ের রাজনীতিতে পরিবর্তন আসে৷ বিমল গুরুংকে সরিয়ে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার রাশ এখন বিনয় তামাংয়ের হাতে৷ কিন্তু সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে পাহাড়ে নিজের শক্তি প্রদর্শন করেন বিমল গুরুং৷ দার্জিলিং লোকসভা আসনে ৩ লক্ষেরও বেশি ভোটে জিতেছেন বিমলগোষ্ঠী সমর্থিত বিজেপি প্রার্থী রাজু বিস্ত সিং। দার্জিলিং বিধানসভাতেও নিজের দাপট বজায় রেখেছে গুরুংপন্থীরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement