BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Taliban Terror: ‘জলের স্রোতের মতো কাবুল দখল করল জঙ্গিরা’, ভয়াবহ অভিজ্ঞতা ঘরে ফেরা বনগাঁর ৩ জনের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 24, 2021 10:40 am|    Updated: August 24, 2021 2:32 pm

Taliban Terror: 3 men of Bongaon returned from Kabul share their horrible experiences | Sangbad Pratidin

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: বিধ্বস্ত ‘কাবুলিওয়ালা’র দেশ যেন এখন বিভীষিকার দেশ। তালিবানি (Taliban) দাপটে সাজানো গোছানো কাবুল তছনছ। এমন অস্থিরতা সেই ২০ বছর আগে দেখেছিল আফগানিস্তান (Afghanistan)। অবশ্য তখন সে দেশের এই চেহারা দেখতে পাননি বিদ্যুৎ, পলাশ, প্রবীররা। তবে এবার দেখলেন তালিবানি শাসন। আর সেই দৃশ্য যেন কিছুতেই ভুলতে পারছেন না কাবুল ফেরত বনগাঁর তিন যুবক। মার্কিন সেনার সাহায্য নিয়ে কাতার হয়ে ভারতে নেমে নিজেদের বাড়িতে ফেরার পর সেসব অভিজ্ঞতার কথাই জানালেন তাঁরা। সঙ্গে মার্কিন সেনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন।

Afghanistan
কাবুল ফেরত গোপালনগরের বাসিন্দা বিদ্যুৎ বিশ্বাস

কাবুল বিমানবন্দরের (Kabul Airport) বড় অংশই মার্কিন সেনার দখলে। তাঁদের জন্য ক্যাটারিং অর্থাৎ খাবার রান্না ও সরবরাহের কাজ করতে কাবুলে গিয়েছিলেন বনগাঁর (Bongaon) গোপালনগরের শংকরপুর গ্রামের বিদ্যুৎ বিশ্বাস ও পলাশ সরকার। সঙ্গে ছিলেন রঘুনাথপুরের বাসিন্দা প্রবীর সরকারও। দিব্যি চলছিল কাজকর্ম। কিন্তু নিমেষেই নামল বিপদ। গোটা দেশ দখলের পর কাবুলের দিকে এগোতে থাকে তালিবান বাহিনী। মার্কিন সেনার কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেদ করে বিমানবন্দরের দক্ষিণ গেট দিয়ে ঢুকে তার অনেকটাই নিজেদের দখলে নেয় জঙ্গিরা। বিদ্যুৎ বিশ্বাসের কথায়, ”কয়েকঘ্ণ্টার মধ্যে জলের স্রোতের মতো জঙ্গিরা ঢুকে কাবুল দখল করে নিল। বাইরে গোলাগুলি। আমরা সব ওই সেনা ক্যাম্পের উপর থেকে, যেখানে ছিলাম, সেখান থেকে দেখছিলাম। আমাদের কোনও ক্ষতি হয়নি। মার্কিন সেনারা অনেক সাহায্য করেছে।”

[আরও পড়ুন: মেদিনীপুরে নার্সকে যৌন নির্যাতন, সিঁদুর পরিয়ে পালাল সাফাইকর্মীর ছেলে!]

একই রকম ভয়াবহ অভিজ্ঞতা শোনালেন পলাশ সরকারও। তিনি বলছেন, ”যে ক্যাম্পে কাজ করতাম, সেখানে আমেরিকান সেনারা কড়া পাহারায় ছিল। ফলে তেমন অসুবিধা হয়নি। কিন্তু বাইরে কিছুক্ষণ পরপরই চলছে গুলি। একের পর এক শহর তালিবান দখল নিচ্ছে।”

Aghanistan
কাবুল ফেরত গোপালনগরের বাসিন্দা পলাশ সরকার

এসব দেখেশুনে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তাঁরা। সিদ্ধান্ত নেন বাড়ি ফেরার। সে কথা সংস্থাকে জানালে সেখান থেকে মোটা অঙ্কের বেতনের অফার দেওয়া হয় তাঁদের। কিন্তু সবকিছু উপেক্ষা করে কাবুল থেকে কাতার হয়ে বাড়ি ফেরেন তাঁরা। মঙ্গলবার সকাল থেকে তাঁদের বাড়িতে ভিড় জমিয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ। সবাই শুনতে চাইছেন তাঁদের নানা অভিজ্ঞতার কথা।

[আরও পড়ুন: পরকীয়ার টানে বীরভূম থেকে মুর্শিদাবাদে গিয়ে বেদম মার খেলেন যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে