১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আরামবাগে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে ধুন্ধুমার, পার্টি অফিস ভাঙচুর, এলাকায় পুলিশি টহল

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: August 5, 2020 1:13 pm|    Updated: August 9, 2021 5:08 pm

TMC-BJP Clash erupts tension at Arambagh on Wednesday

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের আগেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল আরামবাগের কালীপুর এলাকায়। তৃণমূল ও বিজেপি সংঘর্ষে আহত হয় কমপক্ষে পাঁচ জন। গ্রেপ্তার হয়েছে তিন জন বিজেপি সমর্থক। এলাকা উত্তপ্ত থাকায় চলছে পুলিশি টহল। মঙ্গলবার রাতে তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, বিজেপি সমর্থকরা তাদের পার্টি অফিস ভাঙচুর করতে আসে এবং পার্টি অফিসে বসে থাকা দলীয় কর্মীদের মারধর করা হয়।

যদিও বিজেপি সমর্থকদের দাবি, বিজেপি করার অপরাধে তাদেরকে মারধর করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে আরামবাগ থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী যায় সেখান থেকে তিন বিজেপি সমর্থককে গ্রেপ্তার করা হয়। আহতদের আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পরও তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। আহতরা তৃণমূল সমর্থক বলে জানা যায়। যদিও আরামবাগ সাংগঠনিক জেলা সভাপতি বিমান ঘোষ জানান, “ঘটনা কিছুই নয় পরিকল্পিতভাবে আমাদের কর্মীদের ওপর আক্রমণ চালানো হয়েছে যেহেতু আজ সেরা মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হবে দলীয় কর্মীরা যাতে বাইরে বের হতে না পারে সেই কারণেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে তৃণমূল।”

[আরও পড়ুন: শিবলিঙ্গ প্রতিষ্ঠা নিয়ে পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধ, রণক্ষেত্র ঢোলাহাট]

তৃণমূলের পক্ষ থেকে আরামবাগের টাউন সভাপতি রাজেশ চৌধুরি জানান, “মদ্যপ অবস্থায় আমাদের পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালিয়েছে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা। গুন্ডামি করে এলাকা দখল করতে চাইছে। পুলিশ সক্রিয় থাকায় তা করতে পারেনি আইন আইনের পথেই চলবে। বেশ কয়েকজন কর্মী আমাদের আহত হয়েছে।” আরামবাগ থানা সূত্রে জানা যায়, এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশ টহল জারি থাকবে।

[আরও পড়ুন: আগস্টের প্রথম লকডাউনে শুনশান রাস্তাঘাট, মোড়ে মোড়ে নাকা তল্লাশি পুলিশের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে