৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শাসক-বিরোধী সংঘর্ষে উত্তপ্ত বীরভূমের পাড়ুই৷ পুলিশের সামনেই চলছে বোমাবাজি৷ তৃণমূল সমর্থকদের দু’টি বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে৷ অন্যদিকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বাড়িতে আগুন লাগানোর পালটা অভিযোগ করেছে গেরুয়া শিবিরও৷ দু’পক্ষের ঝামেলায় বর্তমানে কার্যত রণক্ষেত্রের রূপ নিয়েছে পাড়ুই৷

[ আরও পড়ুন: কেমন হবে চাঁদে তৈরি বাড়ির নকশা, বানিয়ে ফেললেন তিন বাঙালি]

জানা গিয়েছে, শনিবার রাত থেকে এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে এই ঘটনার সূত্রপাত হয়৷ বোমাবাজি ও এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে দুষ্কৃতীরা৷ শনিবার মাঝরাত গোলা-গুলি চলার পর, রবিবার সকাল থেকে শিমুলিয়া গ্রামে প্রথম বোমাবাজি শুরু করে দুষ্কৃতীরা৷ এরপর অশান্তি ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের গ্রামগুলিতে৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, গ্রামে ঢুকে একে অপরকে লক্ষ্য করে মুহূর্মুহূ গোলাবর্ষণ করে দুষ্কৃতীরা৷ তারা তৃণমূল ও বিজেপির মদতপুষ্ট বলেই জানিয়েছেন স্থানীয়রা৷ ঘটনায় বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলেছে তৃণমূল৷ তাদের অভিযোগ, শাসকদলের দু’জন কর্মীর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে বিজেপি৷ অনেক কর্মীদের মারধর করা হয়েছে৷ শাসকদলের বিরুদ্ধে পালটা আগুন লাগানোর অভিযোগ করেছে গেরুয়া শিবিরও৷

[ আরও পড়ুন: বাবুলের কাছে ক্ষমা চাইল হেনস্তাকারী দেবাঞ্জন! পড়ুয়ার ফেসবুক পোস্ট ঘিরে জল্পনা ]

সূত্রের খবর, অশান্তির অভিযোগ পেয়ে শনিবার রাত থেকেই পাড়ুইয়ের একাধিক গ্রামে মোতায়েন রয়েছে পুলিশ৷ কিন্তু রবিবার সকালে তারা অশান্তি থামাতে গেলে, পুলিশকে লক্ষ্য করেও বোমা ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা৷ পালটা রবার বুলেট ব্যবহার করেছে পুলিশও৷ তবে ধান জমির উলটো দিকের জঙ্গল থেকে দুষ্কৃতীরা চোরাগোপ্তা হামলা চালানোয়, বাধা প্রাপ্ত হয় পুলিশি অভিযান৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, এখনও বিভিন্ন গ্রামে জারি রয়েছে অশান্তি৷ মোতায়েন রয়েছে বিশাল সংখ্যক পুলিশও৷ শাসক-বিরোধী দ্বন্দ্বে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তপ্ত বীরভূম৷ পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে থেকে এই জেলাতে যে রক্ত ঝড়ার পালা শুরু হয়েছিল, লোকসভা নির্বাচনের পরও তা বজায় রয়েছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং