BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ত্রাণ দুর্নীতি রুখতে আরও কড়া তৃণমূল, এবার অভিযোগ পেলেই শোকজ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 25, 2020 9:16 pm|    Updated: June 25, 2020 9:18 pm

TMC gets more serious to curb corruption on Amphan relief

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ত্রাণবণ্টন নিয়ে যতজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ দলের কাছে এসেছে, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ করার পথে হাঁটছে তৃণমূল। বৃহস্পতিবার দলীয় নেতৃত্ব পরিষ্কার নির্দেশ দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে, কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেই প্রথমে শোকজ করা হবে। তারপর দলীয় তদন্তে অভিযোগ প্রমাণ হলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। দরকারে বহিষ্কার।

বুধবার মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে প্রশাসনকে ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপরই দলের তৃণমূল স্তরকেও সেই শাসনব্যবস্থায় বাঁধার কাজ শুরু করে দিলেন দলের সুপ্রিমো। বৃহস্পতিবার দলের তরফ থেকে রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি, মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিটি জেলার সভাপতিকে নিয়ে ভিডিও কনফারেন্স করে দলের এই পদক্ষেপ পরিষ্কার করে বুঝিয়ে দিয়েছেন। বলেছেন, যে যত বড় নেতাই হোক, ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি করলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবেই।

[আরও পড়ুন: ঘূর্ণিঝড়ে দুর্গতদের ক্ষতিপূরণের দাবি, এবার জাতীয় সড়ক অবরোধের হুঁশিয়ারি কান্তির]

উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের বিভিন্ন জেলায় দলের যে নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, তাঁদের নামের তালিকা তুলে দেওয়া হয় সংশ্লিষ্ট জেলা সভাপতিদের হতে। সূত্রের খবর, অভিযুক্তদের শোকজ করার পর ডেকে কথা বলবে দল। জানা গিয়েছে, রেশনের চাল থেকে ত্রিপল নিয়ে অনিয়ম করার মত ছোটখাটো অভিযোগও দল গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখবে। তা প্রমাণিত হলে তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা।

এর মধ্যেই বাংলার পরিযায়ী শ্রমিক ও জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রচারে আরও জোর দেওয়ার কথা উঠে এল এদিনের বৈঠকে। তার জন্য জেলাস্তরে আরও এক দফার সাংবাদিক বৈঠকের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় ঘোষণা হয়েছিল যে জেলায় ২০ হাজারের বেশি পরিযায়ী শ্রমিক এসেছেন, সেই জেলার জন্যই মিলবে আর্থিক অনুদান। বাংলার প্রত্যেক জেলায় এই সংখ্যক শ্রমিক ফেরার পরও বাংলা বঞ্চিত। সাংবাদিক বৈঠকে এ নিয়ে সরব হতে হবে।

[আরও পড়ুন: আগস্টের আগে মিলবে না মেট্রো পরিষেবা, জেনে নিন ৩১ জুলাই পর্যন্ত রাজ্যে আর কী কী বন্ধ]

এছাড়া PM-CARES থেকে যে টাকা উঠবে তার থেকে দশ হাজার টাকা করে পরিযায়ী শ্রমিকদের হতে দেওয়ার দাবি তুলেছিল তৃণমূল। মেলেনি তাও। এই বিষয়কে সামনে রেখেও সরব হওয়ার পরিকল্পনা স্থির হয়েছে। বাংলার প্রাপ্য বকেয়া মেটানোরও দাবি তুলতে চায় রাজ্যের শাসকদল। বৃহস্পতিবার তৃণমূল ভবনে এক সাংবাদিক বৈঠকে বিধায়ক সমীর চক্রবর্তী দাবি করেছেন, পাঁচ হাজার কোটি টাকা উঠেছে এই ফান্ডে। বিজেপি ঘনিষ্ঠ কোনও সংস্থাকে দিয়ে এর অডিট করানোর অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে