BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘দেউচা পাচামি কয়লা শিল্প হলে এক লক্ষ চাকরি হবে’, আশ্বাস অনুব্রতর

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 12, 2020 10:35 pm|    Updated: July 12, 2020 10:35 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: দেউচা পাচামি কয়লা শিল্প (Deucha Pachami coal block) হলে একলক্ষ চাকরি হবে। রবিবার তৃণমূলের দলীয় কর্মীসভা থেকে এমনই আশ্বাস দিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mandal)। তিনি বলেন, “চাকরি প্রার্থীদের বেশিরভাগই হবে আদিবাসী সম্প্রদায়ের।” ভোটকে লক্ষ্য করে জনসমর্থন বাড়াতেই কী এমন আশ্বাস দিলেন শাসকদলের দাপুটে নেতা। রাজনৈতিক মহলে তা নিয়েই শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা সফরের পরে মহম্মদবাজারে কর্মী সভায় যান অনুব্রত মণ্ডল। সংগঠন মজবুত করতে ব্লক সভাপতিকে মাথায় রেখে চার সদস্যের কমিটি গঠন করেন। ব্লক সভাপতি তাপস সিনহা, গৌতম মণ্ডল, কালী বন্দ্যোপাধ্যায় ও শেখ আনারুলকে নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়। নির্দেশ দেওয়া হয় এলাকায় সংগঠন মজবুত করতে। এছাড়াও এলাকায় দলীয় কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করার কথাও বলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। দলীয় সংগঠনে বিক্ষোভ সামাল দিতে ভাঁড়কাটা অঞ্চল সভাপতিকে বদলে দেওয়া। নতুন সভাপতি করা হয় নলীন সোরেনকে। চেয়ারম্যান করা হয় খগেন রাজবংশীকে। নতুন এই কমিটি ঘোষণা করার সঙ্গে সঙ্গে কর্মীসভা থেকে কিছু সদস্য বেরিয়ে যান। দলের জেলা সহ সভাপতি অভিজিৎ রাণা সিংহ বলেন, “সংগঠন ও এলাকা উন্নয়নে কিছু রদবদল ১০ দিন আগেই করেছিলেন জেলা সভাপতি। আজ তার আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হল।”

[আরও পড়ুন: ‘বিন্দুমাত্র লজ্জাবোধ থাকলে মানুষের কাছে ক্ষমা চান’, মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ অধীরের]

কিন্তু এলাকার বিধায়ক আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বা অনুব্রত মণ্ডল উপস্থিত থাকলেও কয়লা শিল্পের বিষয়ে একটি কথা না বলায় প্রথমে বিস্ময় প্রকাশ করেন কর্মীরা। যদিও পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে চাকরির বিষয়ে বলেন। অনুব্রত মণ্ডলের কথায়, “ভেবেছিলাম আশিসদা বলবেন। তাই কয়লা শিল্প নিয়ে কোনও কথা বলিনি।” তবে তিনি আরও জানান, “মহম্মদবাজারে কয়লা শিল্পে একজনও কেউ বঞ্চিত হবে না।”

[আরও পড়ুন: অমানবিক! করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধাকে তাড়িয়ে দিলেন প্রতিবেশীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement