BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অনুপম হাজরাকে অবিলম্বে কাজে ফেরাতে হবে, বিশ্বভারতীকে নির্দেশ হাই কোর্টের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 28, 2018 5:58 pm|    Updated: June 28, 2018 5:58 pm

TMC MP cum Visva Bharati professor gets job back

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবিলম্বে অনুপম হাজরাকে অধ্যাপনার কাজে ফিরিয়ে নিতে হবে। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে এমনই নির্দেশ দিল কলকাতা হাই কোর্ট। হাই কোর্টের নির্দেশিকা পেয়ে স্বস্তির শ্বাস ফেলেছেন বোলপুরের তৃণমূল সাংসদ হাজরা। তিনি জানান, দুর্নীতির বিরোধিতা করিছিলেন। তাই তাঁকে পদ থেকে সরতে হয়েছিল। তিনি যে আইনের বাইরে যে কিছু করেননি, হাই কোর্টের রায় সেই বিষয়কেই মান্যতা দিল।

[পারিবারিক বিবাদের জের, বাচ্চার নগ্ন ছবি নেটদুনিয়ায় ছড়াল প্রতিবেশী]

২০১৪-তে তৃণমূলের সাংসদ নির্বাচিত হন বিশ্বভারতীর সমাজবিদ্যা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এই তরুণ অধ্যাপক। এর আগে অসমের শিলচর বিশ্ববিদ্যালয়েও অধ্যাপনা করেছেন অনুপম। পরে তিনি বিশ্বভারতীতে যোগ দেন। সাংসদ নির্বাচনের পরে ওই বছর জুন মাসের সাত তারিখে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সেই বিজ্ঞপ্তিতে হাজরাকে একস্ট্রা অর্ডিনারি লিভ বা ইওএল দেওয়া হয়। এই ছুটির মেয়াদ ছিল একবছর। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল, পরের বছর অর্থাৎ ২০১৫-র জুনের এক তারিখের মধ্যে তাঁকে অধ্যাপনার কাজে যোগ দিতে হবে। ওই বছর ২৮ মে বিশ্বভারতীতে কাজে যোগ দিতে এলে অধ্যাপক অনুপম হাজরাকে বাধা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বলা হয়, ছুটিতে থাকার কারণে লোকসভার সচিবের কাছ থেকে এনওসি জমা দেওয়ার কথা ছিল তাঁ। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে তিনি তা জমা দিতে পারেননি। পরের দিন জুন মাসের দু’তারিখে আরও একটি বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ জানায়, এক তারিখের মধ্যে কাজে যোগ দিতে না পারায় সাংসদের নাম লিস্ট অফ দ্য প্রফেসরের তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে।

এপর ২০১৫-র ১৩ অগাস্ট জয়েন্ট ডিপার্টমেন্ট অন অফিস অফ প্রফিট (১৬তম লোকসভা )-এর ফোর্থ ডিপার্টমেন্ট থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, অনুপম হাজরার বিশ্বভারতীতে কাজ চালিয়ে যেতে কোনও অসুবিধে নেই। তাই চাকরিতে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে আর কোনও বাধাই রইল না। কিন্তু, তারপরও বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ অনুপম হাজরাকে কাজে ফেরাননি। এরপরই বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গত বছর জুনে হাই কোর্টে মামলা দায়ের করেন তৃণমূল সাংসদ। সেই মামলার একবছর পর হাই কোর্টের বিচারপতি অরিন্দম সিনহার রায় ফিরিয়ে দিল অধ্যাপকের পদ। তবে বিচারপতি জানিয়েছেন, বিশ্বভারতী অধ্যাপকের কাজ যোগ দেওয়াতে বাধা দিতে পারে না। কিন্তু, অনুপম হাজরার লিয়েন বিশ্বভারতী বাড়াবে কিনা, সেটা কর্তৃপক্ষের সিদ্বান্ত।

[গরুর গাড়িতে ধাক্কা বাইকের, কেতুগ্রামে পিটিয়ে খুন যুবককে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে