BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

কুরুচিকর ভুয়ো ভিডিও ফেসবুকে ছড়ানোর অভিযোগ, পুলিশের দ্বারস্থ সাজদা আহমেদ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 15, 2019 8:06 pm|    Updated: May 15, 2019 8:06 pm

An Images

সন্দীপ মজুমদার, উলুবেড়িয়া: উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী তথা বিদায়ী সাংসদ সাজদা আহমেদের বিরুদ্ধে কয়েকটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে মিথ্যা ও কুরুচিকর মন্তব্য করার জন্য বুধবার হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশ সুপারের কাছে দুই ফেসবুক ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন সাজদা আহমেদের নির্বাচনী এজেন্ট জোয়াহির রাহি।

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকে সাজদা আহমেদের নাম করে একটি ভিডিও বিভিন্ন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। যে ভিডিওটিতে সাজদা আহমেদের পরিবর্তে অন্য একজন মহিলাকে দেখা গিয়েছে। সেই ভিডিওর ছবি অথবা গলা কোনওটাই সাজদা আহমেদের নয়। অথচ সেই ভিডিওর চরিত্রকে সাজদা আহমেদ বলে দাবি করে বলা হয়েছে যে সাজদা আহমেদ পশ্চিমবঙ্গে হরিনাম, রামনাম এবং মার্কসবাদ চলতে দিতে চাইছেন না। রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশি মুসলিমদের তিনি এখানে আশ্রয় দিতে চান। হিমাদ্রি ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তি তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে ওই ভিডিওর ছবির স্ক্রিনশট ব্যবহার করে সাজদা আহমেদের নামে কুৎসা প্রচার করছেন বলে অভিযোগ ওঠে।

সেই প্রোফাইলে সাজদা আহমেদের বিরুদ্ধে উপরোক্ত অভিযোগগুলি ছাড়াও বলা হয় তৃণমূল কংগ্রেস এরাজ্যকে পাকিস্তানে পরিণত করতে চাইছে। সাজদা আহমেদ রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড থেকে শুরু করে আধার কার্ড, দু’ টাকা কেজি চাল এবং কন্যাশ্রী প্রদান করতে চান। এরাজ্যে ভয়াবহ পরিবেশ তৈরি হয়েছে। রাজ্য এখন জঙ্গিদের আঁতুড়ঘরে পরিণত হয়েছে। ওই প্রোফাইলে হিন্দুদের উদ্দেশ্যে সাবধান বাণী দিয়ে বলা হয়েছে হিন্দুদের অস্তিত্বের সংকট দেখা দিয়েছে। এই ধরনের প্ররোচনামূলক প্রচারকে সাজদা আহমেদের সম্মানহানিকর বলে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়।

জোয়াহির রাহি তাঁর অভিযোগে বলেন এই ধরনের মিথ্যা কুৎসা রাজ্যের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ক্ষুণ্ন করবে। একই সঙ্গে এই মিথ্যা প্রচারের ফলে তৃণমূল কংগ্রেসের অসংখ্য সমর্থক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের মনেও সাজদা আহমেদ সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারণা তৈরি হবে। তিনি তাঁর অভিযোগে হিমাদ্রি ভট্টাচার্য্য ছাড়াও অভিজিৎ যোশী ও অন্যান্যদের কথা তুলে ধরেন। পুরো বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement