২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বৈঠক চলাকালীন তৃণমূল কার্যালয়ে হামলা, কাঠগড়ায় বিজেপি, রণক্ষেত্র বীরভূমের আমোদপুর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 8, 2021 3:09 pm|    Updated: April 8, 2021 4:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোট চলাকালীন রাজনৈতিক অশান্তিতে বারবার উত্তপ্ত হয়ে উঠছে বীরভূম (Birbhum)। এবার তৃণমূল (TMC) পার্টি অফিসে হামলার ঘটনায় ধুন্ধুমার বাধল আমোদপুরে। অভিযোগ, পার্টি অফিসের সামনে রাখা বাইক, টোটোও ভাঙচুর করা হয়। অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ।

নানুর, পাড়ুইয়ের মতো বীরভূমের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিকভাবে উত্তপ্ত থাকে বরাবর। এই জেলায় ভোট হবে অষ্টম দফা অর্থাৎ ২৯ এপ্রিল। কিন্তু তার অনেক আগে থেকেই রাঙামাটির নানা জায়গায় রাজনৈতিক অশান্তির খবর মিলছে। তবে বৃহস্পতিবার দুপুরে তৃণমূল পার্টি অফিসে হামলার ঘটনায় রণক্ষেত্র হয়ে উঠল আমোদপুরের সাংরা পঞ্চায়েত এলাকা। সূত্রের খবর, তৃণমূলের পার্টি অফিসে বৈঠক চলাকালীন হামলা চালানো হয়। তৃণমূলের অভিযোগ, প্রায় ১০০ বিজেপি  (BJP) সর্মথক বাঁশ, লাঠি নিয়ে এসে সাংড়া গ্রামে তৃণমূল কার্যালয়ে আক্রমণ চালায়। তাতে তিনজন তৃণমূল কর্মী আহত হয়েছেন বলে খবর। এই সময়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতারা বৈঠক করছিলেন। তার মাঝেই এভাবে আক্রমণের মুখে পড়ায় প্রতিরোধ করার সুযোগ পাননি কেউ। অভিযোগের তির বিজেপির বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন: খেজুরির মাঠ থেকে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর ক্ষতবিক্ষত দেহ, খুনের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে]

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। দু’পক্ষের সংঘর্ষ থামাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় তাদের। অন্যদিকে, বাগনানে  বিজেপি অফিসে হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি, অন্য়ান্য প্রান্তেও তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের বিক্ষিপ্ত খবর মিলছে। ভোটের বাংলায় এ ধরনের অশান্তি নতুন নয়। তবে এবছর নজিরবিহীনভাবে সর্বোচ্চ সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে চলছে আট দফায় ভোটপর্ব। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার স্বার্থেই নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্ত। তা সত্ত্বেও এ ধরনের হিংসা এড়ানো যাচ্ছে না।

[আরও পড়ুন: তৃতীয় দফায় গন্ডগোলের জের! এবার থেকে বাড়তি নিরাপত্তা পাবেন মহিলা প্রার্থীরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement