১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মার, কাঠগড়ায় বিজেপি

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: May 10, 2019 1:42 pm|    Updated: May 10, 2019 2:24 pm

An Images

পলাশ পাত্র, তেহট্ট: ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে রাজি হননি। নদিয়ায় তেহট্টে আক্রান্ত হলেন এক তৃণমূল কর্মী। স্থানীয় বিজেপি সমর্থকরা তাঁকে বেধড়ক মারধর করেছেন বলে অভিযোগ। ওই তৃণমূল কর্মী ভরতি হাসপাতালে।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল প্রার্থীর বিকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, গ্রেপ্তার আরএসএস নেতা]

আক্রান্তের নাম অর্জুন হালদার। তেহট্টের বেতাই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টি অফিসের কর্মী তিনি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রোজ সকালে তৃণমূলের পার্টি অফিস খোলেন অর্জুন। দিনভর পার্টি অফিসে থাকেন। রাতে দরজায় তালা ঝুলিয়ে বাড়িতে যান তিনি। তৃণমূল কর্মী অর্জুন হালদারের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার রাতে যখন তিনি পার্টি অফিস বন্ধ করছিলেন, তখন বেতাই বাসস্ট্যান্ডে আসেন কয়েকজন বিজেপি সমর্থক। ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিচ্ছিলেন তাঁরা। প্রতিবাদ করেছিলেন অর্জন। তখন উলটে তাঁকেই বিজেপি সমর্থকরা ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে বলেন অভিযোগ। যথারীতি রাজি হননি ওই তৃণমূলকর্মী। আক্রান্তের দাবি, তাঁকে বেধড়ক মারধর করেছেন বিজেপি সমর্থকরা।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন তেহট্ট ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি দিলীপ পোদ্দার। আর বিজেপির নদিয়া জেলার সহ-সভাপতি অর্জুন বিশ্বাসের পালটা প্রশ্ন, ‘ ‘জয় শ্রীরাম’ বলা কি অপরাধ? বিজেপি সমর্থকদেরই বা কেন প্রতিবাদের মুখে পড়তে হবে?’ কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবের বক্তব্য, তৃণমূল কংগ্রেসের যে দেওয়া পিঠ ঠেকে গিয়েছে, এই ঘটনা তারই প্রমাণ। ঘটনার তদন্তে নেমেছে তেহট্ট থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ভাটপাড়ায় কামব্যাকের লড়াইয়ে গোপাল-হীন মদন!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement