২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভোটের আঁচে তপ্ত বাংলা, রাজনৈতিক সংঘর্ষে ফের প্রাণ গেল তৃণমূল কর্মীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 7, 2018 3:20 pm|    Updated: May 7, 2018 3:20 pm

TMC worker killed in Murshidabad panchayat poll violence

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের উত্তাপে পুড়ছে বাংলা৷ চলছে এলাকা দখলের লড়াই৷ হাই কোর্টে মামলার গেরোয় পঞ্চায়েতের ভবিষ্যৎ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা না কাটলেও বাংলার রাজনীতির ময়দানে থামছে না ভোট-সংঘর্ষ৷ অব্যাহত খুনের রাজনীতি৷ কোথাও বাড়িতে ঢুকে তৃণমূল কর্মীকে খুনের অভিযোগ উঠছে বিজেপির বিরুদ্ধে, কোথায় আবার তৃণমূল প্রার্থীর বাড়িতে গেরুয়া বাহিনীর হামলা৷ সোমবার দিনভর গোটা রাজ্য জুড়ে পৃথক পাঁচটি ঘটনায় দফায় দফায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মুর্শিদাবাদ, ঝাড়গ্রাম, দুর্গাপুর, হাওড়া ও বালুরঘাটে৷

[রাজনৈতিক মঞ্চ ব্যবহার করে জয়ীদের শংসাপত্র বিলি, রামপুরহাটে তুঙ্গে বিতর্ক]

ভোটের উত্তাপ ছড়িয়ে পড়তেই এদিন মুর্শিদাবাদের কান্দির বড়ঞায় তৃণমূল নেতাকে খুনের অভিযোগ ওঠে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে৷ বড়ঞা বিডিও অফিসের সামনে রবিউল শেখ (৪৫) নামে ওই ব্যক্তিকে বোমা মেরে খুন করে দুষ্কৃতীরা৷ জানা গিয়েছে, রবিউল তৃণমূলের বুথ কমিটির সভাপতি ছিলেন৷ এদিনের এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই দফায় দফায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়৷ কে বা কারা এই খুনের পেছনে জড়িতে, তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

[নির্বাচনী সভায় হামলার জেরে আহত প্রার্থী, অবরোধ বিক্ষোভে কংগ্রেস]

এদিন দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে ঝাড়গ্রামে৷ রাতে বাড়িতে ঢুকে তৃণমূলের নির্বাচনী এজেন্ট ও প্রস্তাবককে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা৷ ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোপীবল্লভপুর দুই ব্লকের তপসিয়া অঞ্চলে৷ পরে স্থানীয় বাসিন্দারা গুলিবিদ্ধ ওই তৃণমূল কর্মী বিকাশ নায়েককে উদ্ধার করে ঝাড়গ্রাম জেলা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি করান৷ বিকাশ নায়েকের ছেলে সুরজিৎ নায়েক সংবাদমাধ্যমের সামনে সরাসরি অভিযোগ করেছেন, নির্দল প্রার্থী ভবেশ পানি ও তাঁর দলবল নিয়ে সোমবার রাতে বাড়িতে চাড়াও হয়ে বিকাশবাবুকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। গুলি লাগে তার হাতে৷ সোমবার রাতের এই ঘটনার পর তপসিয়া অঞ্চল তৃণমূল সভাপতি এবং আঁধারিয়া বুথের তৃণমূলের প্রার্থী নিরঞ্জন দাসও অভিযোগের আঙুল তুলেছেন ভবেশ পানির দিকে৷ তিনি বলেন, “বিকাশ নায়েক আমার নির্বাচনী এজেন্ট ও প্রস্তাবক৷ আমার বিরুদ্ধে ভবেশ পানি দাঁড়িয়েছে৷  এলাকায় সন্ত্রাস ছড়ানোর উদ্দেশ্যে ভবেশ পানি দলবল নিয়ে বিকাশ বাবুর উপর গুলি চালিয়েছে।” এদিন মুর্শিদাবাদ, ঝাড়গ্রামের পাশাপাশি রাজনৈতিক হিংসা ছড়িয়ে পড়ে দুর্গাপুর, হাওড়ায়৷ তৃণমূলের হয়ে প্রচার করার অপরাধে বিরোধীদের হাতে আক্রান্ত শাসকদলের কর্মীরা৷ তৃণমূল প্রার্থীর বাড়ি ভাঙচুর, আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া, মারধর-সহ চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার হয়েছেন তৃণমূল কর্মীরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে