BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সোনার দোকানে দুষ্কৃতীদের তোলাবাজি, ধার করে দাবি মেটালেন ব্যবসায়ী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 27, 2018 12:10 pm|    Updated: January 27, 2018 12:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধার করে দুষ্কৃতীদের দাবি মেটালেন সোনার দোকানের মালিক। একটা দুটো টাকা নয়। একেবারে ৫০ হাজার টাকা। অভিনব ঘটনাটি ঘটেছে চাকদহের পৌরমার্কেটে। শুক্রবার রাত আটটা নাগাদ ডাকাতির উদ্দেশ্যে দত্ত গিনি হাউসে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন দোকানের মালিক বিকাশ দত্ত। তাঁর পেটে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবিও করে। বিকাশবাবুর কাছে সেই সময় এত টাকা ছিল না। তখন একপ্রকার বাধ্য হয়েই পড়শি দোকান থেকে ধার করে দুষ্কৃতীদের দাবি মেটান তিনি। টাকা পাওয়ার পরই এলাকা থেকে চম্পট দেয়ে দুষ্কৃতীদল। ইতিমধ্যেই দুষ্কৃতীদের ধরতে আসরে নেমেছে চাকদহ থানার পুলিশ।

[চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে আহত ২]

জানা গিয়েছে, রাতে একাই দোকানে ছিলেন বিকাশবাবু। আটটার সময় ২০ জনের দলটি বাইকে চেপে দোকানে আসে। প্রথমেই দোকানে ঢুকে শোকেস ভাঙতে শুরু করে। ওই শোকেসের মধ্যেই সোনার গয়নাগুলি সাজানো ছিল। বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন বিকাশ দত্ত। অভিযোগ, তাঁকে বেধড়ক মারধর করে দুষ্কৃতীরা। তবে শোকেস ভাঙলেও একটিও গয়নাতে হাত দেয়নি। এরপর বিকাশবাবুর পেটে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। সেই সময় দোকানে নগদ এতটাকা ছিল না। তাই বাধ্য হয়েই পড়শি দোকান থেকে ধার করে দুষ্কৃতীদের দাবি মেটান বিকাশবাবু। আশপাশের দোকানদাররা ডাকাতির বিষয়টি আঁচ করেছিলেন। তবে সশস্ত্র ডাকাতদলকে দেখে এগোতে সাহস পাননি। দুষ্কৃতীরা এলাকা ছাড়তেই গিনি হাউসে ভিড় করে উৎসাহীরা। রাতেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে চাকদহ থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল ঘুরে দেখে।

এদিকে দোকানে সিসিটিভি-র বন্দোবস্ত না থাকায় দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি। ২০ জনের প্রত্যেকেরই মুখ ঢাকা ছিল কাপড়ে। তবে ভাঙা কাচ থেকে আঙুলের ছাপ তোলা হয়েছে। দুষ্কৃতীদের খোঁজে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ডাকাতির খবর পেয়ে সকালেই ঘটনাস্থল ঘুরে গিয়েছেন এলাকার বিধায়ক। ব্যবসায়ী সমিতির লোকজনও বিকাশবাবুর দোকানে আসেন। এরপরেই ব্যবসায়ী সমিতির তরফে থানায় ডাকাতির অভিযোগ দায়ের হয়। আচমকা ডাকাতির ঘটনায় পৌরমার্কেটে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

[সর্বশিক্ষা অভিযানের ক্যালেন্ডারে ছোট্ট নন্দিতার আঁকা ছবি, উচ্ছ্বাস কেতুগ্রামে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement