১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাত নামলেই রাস্তায় মদ্যপানের আসর, প্রতিবাদ করে আক্রান্ত যুবক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 23, 2018 7:02 pm|    Updated: October 31, 2018 1:36 pm

Uttarpara: A youth beaten for protesting against drinking on road

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: রাতদুপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় বসে মদ্যপান করছিলেন স্থানীয় কয়েকজন যুবক। প্রতিবাদ করায় বেধড়ক মারধর করা হল বছর চব্বিশের এক যুবককে। আক্রান্ত যুবকও ওই এলাকারই বাসিন্দা। মারের চোটে মাথা ফেটেছে প্রতিবাদীর। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির উত্তরপাড়ায়। থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্ত যুবকের বাড়ির লোকেরা।

[মাত্র ২০ টাকা নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাদ, যুবককে পিটিয়ে মারল শ্বশুরবাড়ির লোকেরা]

সূর্য ডুবলেই উত্তরপাড়ার বিভিন্ন প্রান্তে প্রকাশ্যে মদ্যপানের আসর বসে। মদ্যপ যুবকের দৌরাত্ম্যে নাজেহাল স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, সব জেনেও কোনও ব্যবস্থা নেয় না পুলিশ। সোমবার রাতে শহরের বিকে স্ট্রিট এলাকায় মদ্যপ যুবকদের হাতে আক্রান্ত হলেন বছর চব্বিশের এক যুবক। বেধড়ক মারে মাথা ফেটেছে তাঁর। আক্রান্ত যুবকের নাম রাহুল বাগচি। বিকে স্ট্রিট এলাকাতেই থাকেন তিনি। জানা গিয়েছে, সোমবার রাত দশটা নাগাদ যখন বাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন রাহুল, তখন বিকে স্ট্রিটে প্রকাশ্য রাস্তায় বসে মদ্যপান করছিলেন স্থানীয় কয়েকজন যুবক। মদের নেশায় বেসামাল হয়ে বাইকের উপরে হুমড়ি খেয়ে পড়েন তাঁরা। মদের বোতল ভেঙে যায়। আক্রান্ত যুবক রাহুল বাগচির অভিযোগ, তাঁর কাছ থেকে টাকা চান মদ্যপ যুবকরা। কিন্ত, টাকা দিতে অস্বীকার করেন তিনি। উলটে প্রকাশ্য রাস্তায় এভাবে মদ্যপান করার প্রতিবাদ করেন রাহুল। এরপরই ওই যুবকের ওপর চড়াও হয় অভিযুক্তরা। চলে বেধড়ক মারধর। মারে চোটে রাহুল বাগচির মাথা ফেটে গিয়েছে। ঘটনায় উত্তরপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্ত ওই যুবক। তবে অভিযুক্তরা এখনও অধরা।

[কাকা তৃণমূলে, ভাইপো বিজেপির প্রার্থী! জমজমাট ভোটের লড়াই গলসিতে]

এই ঘটনার জন্য পুলিশি নিষ্ক্রিয়তাকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন রাহুল বাগচির বাবা দিলীপ বাগচি। তাঁর অভিযোগ, আগে রাতে বিকে স্ট্রিট এলাকায় টহল দিত পুলিশ। কিন্তু, এখন আর এলাকায় পুলিশি টহলদারি চোখে পড়ে না। আর সেই সুযোগে রাত নামলেই প্রকাশ্য রাস্তায় মদের আসর বসাচ্ছে একশ্রেণির দুষ্কৃতীরা। কিছু বলতে গেলেই মারধর করা হচ্ছে। দিলীপ বাগচির দাবি, অভিযোগ নিয়েই দায় সারছে পুলিশ। ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

[‘অনিশ্চিত’ ভোটের ঠেলায় থমকে গ্রাম-বাংলার বিয়ের অনুষ্ঠান]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে