BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বিতর্কের জেরে সিনেমার শুটিং বন্ধ বিশ্বভারতী চত্বরে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 16, 2018 10:43 am|    Updated: February 16, 2018 10:43 am

Visva Bharati University bans Film shooting in premises

নিজস্ব সংবাদদাতা, বোলপুর: বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে একাধিক সিনেমার শুটিং নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। উপাসনা মন্দিরের ভিতরে শুটিং করা নিয়ে বিতর্ক চরমে ওঠে। অভিযোগ ওঠে তৎকালীন উপাচার্য স্বপন দত্ত তাঁর প্রভাব খাটিয়ে ওই বিতর্কিত বাণিজ্যিক ছবির শুটিংয়ের অনুমতি দিয়েছিলেন। এবার বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পাকাপাকি সমস্ত ধরণের বাণিজ্যিক সিনেমার শুটিং বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল বর্তমান কর্তৃপক্ষ। একমাত্র কেন্দ্রীয় সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রকের অনুমোদিত সিনেমা বা ডকুমেন্টারি শুটিংয়ের অনুমতির ক্ষেত্রে বিশ্বভারতী সমস্ত দিক বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে। কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন বিশ্বভারতীর প্রাক্তনী এবং আশ্রমিকরা।

[এবছর পলাশহীন বসন্তোৎসব বিশ্বভারতীতে, শোভাযাত্রায় থাকবেন না উপাচার্যও]

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের আশ্রম এলাকা সংরক্ষিত। এখানে একাধিক বাড়ি, ভাস্কর্য, পেন্টিং রয়েছে, যা কেন্দ্রীর সরকার হেরিটেজ ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে অন্যতম উপাসনা মন্দির, ছাতিমতলা, পাঠভবন চত্বর, মৃণালিনী আনন্দ পাঠশালা, কলা ও সংগীত ভবন । অভিযোগ, বিভিন্ন সময়ে বিশ্বভারতীর এই ঐতিহ্যকে ধ্বংস করার চেষ্টা হয়েছে। এমনকী বিশ্ববিদ্যালয়ের সব থেকে পবিত্র জায়গা উপাসনা মন্দিরের ভিতরে সিনেমার শুটিংয়েরও অনুমতি দেওয়া হয়। যা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। প্রতিবাদে নামেন আশ্রমিক, ছাত্রছাত্রী এবং অধ্যাপকরা। কিন্তু বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ এই বিষয়ে কোনও ব্যবস্থা না নিলে কেন্দ্রীয় সরকার এবং কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রক বিশ্বভারতীর কাছে এই বিষয়ে জানতে চায়। এর পরেই বিশ্বভারতীতে সিনেমার শুটিংয়ের অনুমতির বিষয়টি দেখার জন্য রবীন্দ্র ভবনের অধ্যক্ষকে চেয়ারম্যান করে একটি স্ট্যান্ডিং কমিটি করা হয়।

অভিযোগ, এত বিতর্কের মধ্যেও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য স্বপন দত্ত অবসর নেওয়ার আগে একটি বাণিজ্যিক সিনেমার শুটিংয়ের অনুমতি দিয়ে গিয়েছেন। এদিকে বর্তমান নিয়ম অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে কোনও সিনেমার শুটিং করতে হলে প্রথমে স্ট্যান্ডিং কমিটির অনুমতি নিতে হবে। কমিটি অনুমতি দিলে তা খতিয়ে দেখবেন উপাচার্য তারপর তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন। বর্তমান ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজকলি সেন বলেন, “বিশ্বভারতীর আশ্রম চত্বর, কলাভবন, সংগীত ভবন, রবীন্দ্র ভবন সংরক্ষিত এলাকা। এই সব এলাকায় আমারা সমস্ত ধরনের কমার্শিয়াল সিনেমার শুটিং বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একমাত্র কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রকের অনুমোদিত কোনও সিনেমা বা ডকুমেন্টারির ক্ষেত্রে আমাদের কমিটি সব দিক বিবেচনা করে শুটিংয়ের অনুমতি দিতে পারে।” এই বিষয়ে আশ্রমিক অজয় ভট্টাচার্য বলেন, “বিশ্বভারতী নিজেদের সংরক্ষিত ঐতিহ্যগুলিতে সিনেমার শুটিংয়ের অনুমতি দেয়। উপাসনা মন্দিরে শুটিং হতে পারে ভাবতে পারি না। বর্তমান কর্তৃপক্ষের৷ সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি।”

[বিশ্বভারতীতে স্টুডিও তৈরিতে দুর্নীতির অভিযোগ, রাষ্ট্রপতিকে চিঠি অধ্যাপকদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে