২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: প্রখর দাবহাহে মাত্র এক টাকায় পরিশ্রুত পানীয় জলের প্রতিশ্রুতি দিলেও তা বাস্তবায়িত করতে ব্যর্থ হল দুর্গাপুর নগরনিগম। পরিকাঠামো তৈরি হওয়ার পরেও চালু করা সম্ভব হল না জলের এটিএম। জানা গিয়েছে, কাউন্টারটিতে ভেন্টিলেশন ও বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকার ফলেই ওয়াটার এটিএম চালু করা সম্ভব হয়নি।

[আরও পড়ুন: কমেছে প্রচারের সময়, শেষ মুহূর্তে রোড শোয়ে নেপালদেব-ইয়েচুরি]

বছর খানেক আগে ‘গ্রিন সিটি’র আওতাভুক্ত দুর্গাপুরের জনবহুল এলাকাগুলিতে ১৬টি ওয়াটার এটিএম বসানোর পরিকল্পনা করে প্রশাসন। বাজার, হাসপাতাল এলাকায় পথচলতি মানুষের তৃষ্ণা মেটাতে মাত্র এক টাকার বিনিময়ে এক লিটার জল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় দুর্গাপুর নগর নিগম।। গুজরাটের এক বেসরকারি সংস্থাকে এটিএমের বরাতও দেওয়া হয়। কিন্তু ঘর তৈরি করে  দেয় পূর্ত দপ্তর। তাতে ঘটে বিপত্তি। জলের এটিএম বসাতে গেলে বোঝা যায় ওই ঘরে এটিএম ব্যবহার করা সম্ভব নয়।

কিন্তু, প্রায় ১ কোটি ২৮ লক্ষ টাকা খরচ করে তৈরি এই জলের এটিএমগুলির কেন এই হাল?  দুর্গাপুর নগর নিগম সূত্রে জানা গেছে, পূর্ত দপ্তর তাদের সঙ্গে আলোচনা না করেই ওয়াটার এটিএমের ঘরগুলি তৈরি করেছিল। এমনকী ওই ওয়াটার এটিএমের আশেপাশে নিগমের জলের লাইন আছে কি না তাও দেখেনি পূর্ত দপ্তর। কার্যত পরিকল্পনা বিহীনভাবেই ঘরগুলি তৈরি করা হয়েছে। তার থেকেও বড় সমস্যা হল, ঘরে কোনও ভেন্টিলেশনের ব্যবস্থা করেনি পূর্ত দপ্তর। ফলে মেশিন গরম হয়ে গেলে হাওয়া না পেয়ে তা খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। তাই ফের প্রতিটি ঘরে ভেন্টিলেশনের ব্যবস্থা করার আবেদন করেছে নিগম।

[আরও পড়ুন: প্রকৃতি বাঁচাতে বনাঞ্চল তৈরি, বনদপ্তরের উদ্যোগে দক্ষিণ দিনাজপুরে সবুজায়ন]

সেই সঙ্গে রয়েছে বিদ্যুৎ দপ্তরের গড়িমসি। অভিযোগ, শহরের ১৬টি এটিএমে এখনও বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করতে পারেনি রাজ্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন নিগম। এই ব্যাপারে দুর্গাপুর নগর নিগমের মেয়র পারিষদ সদস্য (বিদ্যুৎ)-কে এই দায়িত্ব দেওয়া হলেও তিনি দীর্ঘদিন ধরেই নিগমে না আসায় বিষয়টি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নয় নিগমের আধিকারিকরা। অর্থাৎ পূর্ত দপ্তর ভেন্টিলেশনের কাজ শুরু করলেও বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে ধোঁয়াশায় নিগম। এ প্রসঙ্গে দুর্গাপুর নগর নিগমের মেয়র পারিষদ সদস্য (জল) পবিত্র চট্টোপাধ্যায় জানান,“ পূর্ত দপ্তর ও বিদ্যুৎ বিভাগ তাঁদের কাজ শেষ করলেই চালু হয়ে যাবে ওয়াটার এটিএমগুলি। আমাদের তরফে সমস্ত পরিকাঠামোগত প্রক্রিয়া শেষ করা হয়েছে।” তবে চলতি গ্রীষ্মে আটটি জলের এটিএম চালু করার সম্ভব হবে এমনটাই আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং