BREAKING NEWS

২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘রাজ্যের ভূমিপুত্রই মুখ্যমন্ত্রী’, কাঁথির জনসভায় নরেন্দ্র মোদির বক্তব্যের হাইলাইটস

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 24, 2021 11:24 am|    Updated: March 24, 2021 1:06 pm

An Images

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: অধিকারী গড় পূর্ব মেদিনীপুর কাঁথিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi) জনসভা। সভামঞ্চ থেকে কী বার্তা দিলেন বিজেপির তারকা প্রচারক?

  • স্বাধীনতার পুণ্যভূমিকে প্রণাম। এবারের ভোটারদের জন্য এই নির্বাচন খুব গুরুত্বপূর্ণ।
  • এবার আসল পরিবর্তন দরকার।  ২ মে দিদি যাচ্ছে আসল পরিবর্তন আসছে।
  • আমফানের ত্রাণে কেন্দ্র যা পাঠিয়েছে তা ভাইপো উইন্ডোতে আটকে গেছে। বাংলা জানতে চাইছে আমফানের ত্রাণ কে লুঠ করল? আমফানে দুর্গত মানুষ এখনও ফাটা ছাদের নিচে রয়েছে। কেন এখনও রাস্তায় আমফান দুর্গতরা?
  • পাওয়া যায় না দরকারে, ভোটের আগে দুয়ারে, এটাই এদের খেলা। ভোটের পর মানুষ আপনাকে দরজা দেখাবে। শিশুরাও আপনার খেলা বুঝতে পেরে গিয়েছে।  তৃণমূলের পাপের ঘড়া পূর্ণ হয়েছে।
  • বাংলা চায় শিক্ষা, শিল্প, কর্মসংস্থান। বাংলা চায় নারী সুরক্ষা। বাংলা চায় কৃষক সম্মান। বাংলা চায় বিজেপি সরকার।  বাংলায় দরকার বিজেপি সরকার। সব স্কিমকে স্ক্যাম মুক্ত করবে।
  • বিজেপি কাটমানি মুক্ত করবে বাংলাকে। বিজেপি সরাসরি ব্যাংকে অর্থ সাহায্য দেবে। করোনা কালে কয়েক শো কোটি টাকার সাহায্য মা-বোনেদের অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে। পুরো দেশের জলের সমস্যা মিটাতে জল পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।  বিজেপির সব প্রকল্পের কেন্দ্রে মহিলারা। আর কেন্দ্রের সমস্ত প্রকল্পের বাধা তৃণমূল।
  • লোকালের জন্য ভোকাল বিজেপি সরকার। এখানকার কাজু গোটা দেশে পৌঁছে যাচ্ছে।
  • বাংলার কৃষকরা ভুলতে পারবেন না তাঁদের সঙ্গে কতটা নির্মমতা করেছে মমতা। বাংলার কৃষকরা ২ মে থেকে তিন বছরের টাকা পাবেন। সরকার তৈরি হলেই গত তিন বছরের বকেয়া টাকা প্রতি কৃষক সরাসরি পাবেন। দেশে পাটের রমরমা বাড়বে।
  • হলদিয়ার গর্ব নষ্ট করেছে সিন্ডিকেট। মৎস্যজীবীদের তোলাবাজি, কাটমানি থেকে মুক্ত করার সময় এসে গেছে।  হলদিয়া বন্দর, সমুদ্র সৈকতে পর্যটন শিল্প-সহ একাধিক শিল্প গড়ে উঠতে পারে। এই এলাকা পর্যটন সার্কিটে জুড়তে পারে। সুবিধা পাবেন এই এলাকার বহু মানুষ।  বাংলায় বিজেপি এলে রাতারাতি তোলাবাজি খতম হবে। 
  • বাংলার ইস্তাহারে জনতার আওয়াজ। মানুষের চাহিদা বুঝে এই ইস্তাহার তৈরি হয়েছে। 
  • যে বাংলা গোটা ভারতকে বন্দে মাতরমের ভাবনায় বেঁধেছে। সেই বাংলায় মমতাদি বহিরাগতের কথা বলছে। এই ভারতভূমির কেউ বহিরাগত নয়। দিদি, এখানে কোনও ভারতবাসী বহিরাগত নয়। কবিগুরুর ভূমিতে কেউ বহিরাগত নয়। 
  • দিদি কী কাজ করেছে তার পাই পাই হিসাব দেওয়া উচিৎ। কিন্তু তিনি তা করছেন না। হিসাব চাইলে উনি রেগে যাচ্ছেন। 
  • দিদি আপনি খেলা খেলুন, আমরা মানুষের সেবা করব। বিজেপির একটাই মন্ত্র, গরিবের উন্নয়ন। বাংলার মানুষ আপনার খেলা বুঝে গিয়েছে। 
  • আপনারা দেখেছেন নন্দীগ্রামকে কীভাবে  বদনাম করা হচ্ছে। এখানকার মানুষ আপনাকে মান-সম্মান দিয়েছে। আর এখানকার মানুষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন। এর জবাব নন্দীগ্রামের মানুষ দেবে। 
  • রাজ্যে প্রতিদিনই হিংসা হচ্ছে। বোমা-গুলি চলছে। অথচ উন্নয়ন হওয়ার কথা ছিল। রাজ্যের ভূমিপুত্রই হবে এখানকার মুখ্যমন্ত্রী।
  • আমাকে বারবার দিদি বলতে হয়, কারণ উনি তো কারোর কথা শোনেন না।  

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement