BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ছক ভাঙা পড়াশোনাতেই এসেছে সাফল্য, ডাক্তার হতে চায় মাধ্যমিকে দশম সৌম্যদীপ

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 21, 2019 6:49 pm|    Updated: May 21, 2019 8:07 pm

WB Madhyamik Exam: 10th rank holder Soumyodip wants to be a Doctor

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষার মেধা তালিকায় দশম স্থান অধিকার করেছে হুগলির ধনেখালির মহামায়া বিদ্যামন্দিরের সৌম্যদীপ দত্ত৷ ভবিষ্যতে ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন দেখা এই ছেলেটি মাধ্যমিকে পেয়েছে ৬৮১ নম্বর৷ তার এই সাফল্যের রহস্যটা কী? সৌম্যদীপের জবাব, ‘‘কোনও ছকে বাধা নিয়ম মেনে নয়৷ যখন ইচ্ছা হত, তখনই পড়তাম৷ তবে যতক্ষণ পড়তাম, মন দিতাম৷ এটাই রহস্য৷’’

[ আরও পড়ুন: আইআইটি ক্যাম্পাসের কাছে যুবককে গুলি করে খুন, আতঙ্ক খড়গপুরে ]

সৌম্যদীপের বাবা দুলাল চন্দ্র দত্ত ছোটখাটো একটি কাপড়ের দোকান চালান। মা লীনা দেবী গৃহবধূ। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, ছোট থেকেই পড়াশোনায় ভাল সৌম্যদীপ৷ ক্লাসে কোনওদিন প্রথম ছাড়া দ্বিতীয় হয়নি। ছোট থেকেই বড় ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন দেখে সে। আপাতত বিজ্ঞান শাখায় ভরতি হয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার শপথ নিয়েছে সৌম্যদীপ৷ মাধ্যমিক পরীক্ষায় যে ভাল ফল হবে, তা নাকি আশাই করেছিল ছোট ছেলেটি এবং তার পরিবারের সদস্যরা৷ সেই আশাপূরণ হতেই হও খুশির হাওয়া ছড়িয়ে পড়েছে ধনিয়াখালির দত্ত বাড়িতে। এই সাফল্যের পুরো কৃতিত্বটাই বাবা-মা ও শিক্ষকদের দিয়েছে সৌম্যদীপ।

[ আরও পড়ুন: অভাব নিত্যসঙ্গী, মাধ্যমিকে নজরকাড়া সাফল্য পেল কাটোয়ার সোমা ]

নিজের সাফল্যের রহস্য বলার সঙ্গে সঙ্গে ভাবী মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদেরও টিপস দিয়েছে সৌম্যদীপ৷ তাঁর পরামর্শ, ‘‘ভাল ফলাফল করতে গেলে, প্রত্যেক ছাত্রকে খুঁটিয়ে বই পড়তে হবে৷ পাশাপাশি সহায়িকার সাহায্য নিতে হবে।’’ অবসর সময় কী করে সৌম্যদীপ? উত্তরে সে জানায়, ‘‘যেকোনও ধরনের গল্পের বই পড়া আমার নেশা। খেলার মধ্যে ক্রিকেট আমার অত্যন্ত প্রিয়। তার উপর কলকাতা নাইট রাইডার্স হলে তো কথাই নেই। আমি কেকেআরের অন্ধ ভক্ত। মাঝেমধ্যে সময় পেলে আমি নিজেই মাঠে নেমে ক্রিকেট খেলা শুরু করি।’’ ধনেখালির এই কৃতী ছাত্রের সাফল্যের খবর শুনে তার বাড়িতে ছুটে যান রাজ্যের মন্ত্রী অসীমা পাত্র। তিনি জানান, ‘‘সৌম্যদীপ ধনেখালির গর্ব। পড়াশোনার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হলে, আমি সবসময় ওর পাশে আছি।’’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে