২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সঙ্গে রাখুন ছাতা, শীতকালীন বৃষ্টির পূর্বাভাস কলকাতা-সহ গোটা রাজ্যে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: January 2, 2020 10:17 am|    Updated: January 2, 2020 10:18 am

Weather department predicts rain in Kolkata and adjacent areas

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছরের শুরুতেই বৃষ্টির পূর্বাভাস। বৃহস্পতিবার অর্থাৎ আজ থেকেই রাজ্যে ফের বৃষ্টির সম্ভাবনা। সকাল থেকেই মুখভার আকাশের। আংশিক মেঘলা এমনিতেও পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে আজ শহরের তাপমাত্রা উর্দ্ধমুখী। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ২ ডিগ্রি বেশী। তার মাঝেই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দোসর হয়ে রাজ্যে আসছে বৃষ্টি। 

ভরা শীতেও আজ থেকে বৃষ্টির পূর্বাভাস। শহর থেকে জেলা কোথাও অল্প আবার কোথাও মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে। বৃষ্টি চলবে শনিবার পর্যন্ত। তারপর ধীরে ধীরে কাটবে মেঘ। শুক্র এবং শনিবার বৃষ্টির জন্য তাপমাত্রার পারদ চড়বে। শীতবিলাসীরা ভাবছেন তো যে, একে বিলম্বিত শীত, তার উপর আবার এত কম দিন থাকল! না, তবে চিন্তা করবেন না! আগামী সপ্তাহ থেকে ফের জাঁকিয়ে শীত পড়ার কথা শোনাল হাওয়া অফিস। বৃষ্টি থামলে উত্তরের হাওয়া ঢুকতে শুরু করবে। মেঘলা আকাশ হওয়ার ফলে স্বাভাবিকভাবেই আগামী দু’-তিনদিন তাপমাত্রার পারদ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে চলতি সপ্তাহে শীতপোশাক আলমারিতে তুলে রাখতে হবে তাও নয়।

[আরও পড়ুন: বছরের শুরুতে পিকনিকে মাতল হনুমানের দল, চলল খাওয়াদাওয়া-লম্ফঝম্প]

বৃহস্পতিবার থেকে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজতে পারে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলি। হতে পারে শিলাবৃষ্টিও। আজ শহর তিলোত্তমাও ভিজতে পারে বৃষ্টিতে, জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। শীতের বৃষ্টিতে ভিজতে পারে উত্তরের জেলাগুলিও। আগামিকাল শুক্রবার বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। আবহাওয়া দফতরসূত্রে খবর, পশ্চিমি ঝঞ্ঝা কাশ্মীরে প্রবেশ করেছে। ফলে জলীয় বাষ্প ঢুকে পড়েছে। সঙ্গে রয়েছে শীতের হাওয়া। আর এই ঠান্ডা হাওয়া এবং জলীয় বাষ্পের বৈপরীত্যে মেঘ তৈরি হবে আকাশে। তার ফলেই হবে বৃষ্টি। তবে এই ঝঞ্ঝা শনিবার থেকে বিদায় নেবে। 

[আরও পড়ুন: নতুন বছরের শুরুতেই চড়ল তাপমাত্রার পারদ, এড়ানো যাচ্ছে না বৃষ্টির ভ্রূকূটি ]

এদিকে বর্ষশেষের দিনের তুলনায় বছরের প্রথম দিনের তাপামাত্রা অনেকটা বেড়েছে। ৩১ ডিসেম্বর যেখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১.৬। বুধবার তা বেড়ে হয়েছে ১২.১ ডিগ্রি। কিন্তু তাতে কী? গত ১০ বছরের মধ্যে এদিনই ছিল শীতলতম নিউ ইয়ার। গতবছর বর্ষবরণের দিন তাপমাত্রা ছিল ১২.৫ ডিগ্রি। এদিকে আজ থেকে বৃষ্টি হলেও তাপমাত্রা কমবে না। তাপমাত্রা ফের কমবে সোমবারের পর। বৃষ্টি থামলে উত্তরের হাওয়া ঢুকতে শুরু করবে। পশ্চিমি ঝঞ্ঝা এখন কাশ্মীরে প্রবেশ করছে। তার প্রভাবেই উত্তরবঙ্গে তুষারপাতেরও সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার এবং শনিবার জানুয়ারি দার্জিলিংয়ের উঁচু অংশ এবং সিকিমের একাংশে প্রবল তুষারপাতের সম্ভাবনা। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে