BREAKING NEWS

২৫ চৈত্র  ১৪২৬  বুধবার ৮ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

ফিকে হচ্ছে শীতের আমেজ, বেলা বাড়তেই গ্রীষ্মের অনুভূতি

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 17, 2020 11:54 am|    Updated: February 17, 2020 11:54 am

An Images

নব্যেন্দু হাজরা: রাজ্য থেকে বিদায় নিচ্ছে শীত। তার রেশ এখনও রয়েছে। রাত ও ভোরের দিকে ঠান্ডার শিরশিরানি অনুভূত হচ্ছে। বেলা বাড়লেই চড়ছে তাপমাত্রার পারদ। বেশ গরম লাগতে শুরু করছে। এমনকী ঘামও হতে শুরু করছে। এদিকে সকালের দিকে সামান্য কুয়াশা থাকলেও বেলার দিকে আকাশ পরিষ্কার থাকছে।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার চওড়া ব্যাটে ভর করে এবছর শীত লম্বা ইনিংস খেলেছে। ঘুরেফিরে বারবার ঠান্ডা পড়েছে। রাজ্যে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত ভালই ঠান্ডা ছিল। যা এক কথায় নজিরবিহীন। তবে গত সপ্তাহের মাঝামাঝি থেকেই রাজ্য থেকে শীত পাততাড়ি গোটাতে শুরু করেছে। বেলা বাড়লেই গরম বাড়ছে। সকালে যারা বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন, তাঁরা এখনও হালকা পুলওভার বা সোয়েটার নিচ্ছেন। কিন্তু সূর্য উঠতেই বাড়ছে তাপ। রীতিমতো অস্বস্তি হচ্ছে সে সময়। সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকবে। যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। গতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ছিল ৩৫ থেকে ৯৫ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: চার সপ্তাহ ধরে বর্ধমান মেডিক্যালে পেসমেকারের জোগান বন্ধ, সংকটে বহু রোগী়]

 তবে শীতের বিদায়বেলায় উত্তরবঙ্গের জন্য রয়েছে দুসংবাদ। বৃষ্টিতে ভিজতে পারে পাহাড়ের জেলাগুলি। সোমবার উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং হালকা বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। তবে দক্ষিণবঙ্গে আপাতত কোনও বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে মঙ্গলবার ফের একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা জম্মু-কাশ্মীরে ঢুকছে। বৃহস্পতিবার আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকবে বলে জানা গিয়েছে। এর ফলে আবহাওয়ায় বেশকিছু পরিবর্তন হবে বলে মনে করা হচ্ছে।তুষারপাত হতে পারে উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশ। 

[আরও পড়ুন: বিল মেটাতে দেরি হওয়ায় চিকিৎসা বন্ধের অভিযোগ, রোগীর মৃত্যুতে হাসপাতালে ভাঙচুর]

তবে গরমও ইনিংসের শুরু থেকেই দাপুটে ব্যাটিং করছে। যা দেখে কার্যত সিঁদুরে মেঘ দেখছেন রাজ্যবাসী। তাঁদের কথায়, গরমের শুরুতেই যদি তাপমাত্রা এতটা বেশি থাকে, তবে বাকি সময় কী হবে!

Advertisement

Advertisement

Advertisement